কঙ্গোতে সড়ক দুর্ঘটনায় অতিরিক্ত আইজিপি রৌশন আরা নিহত

প্রকাশ | ০৬ মে ২০১৯, ১১:২০

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
ফাইল ছবি

ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন পুলিশ স্টাফ কলেজের রেক্টর অতিরিক্ত আইজিপি রৌশন আরা বেগম, পিপিএম, এনডিসি (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না লিল্লাহি রাজিউন)। কঙ্গোর স্থানীয় সময় রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে রাজধানী কিনশাসায় লরির সঙ্গে তাকে বহনকারী গাড়িটির এই দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশের এআইজি মো. সোহেল রানা (গণমাধ্যম ও গণসংযোগ) এক বার্তায় জানান, জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন বিএএনএফপিইউ-এর মেডেল প্যারেডে অংশ নিতে সেখানে গিয়েছিলেন অতিরিক্ত আইজিপি রৌশন আরা। বিএএনএফপিইউ-এর কমান্ডার (এসপি) ফারজানা এবং চালকসহ বাকি দুজন নিরাপদে আছেন।

গত ৩ মে রৌশন আরা বেগম শান্তি মিশনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন। কঙ্গোতে পৌঁছান ৪ মে। তার পরের দিনই (৫ মে) সেখানে মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনি প্রাণ হারান।

রাজধানী ঢাকার মগবাজারের সাবেক টিএন্ডটি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও ভিকারুননিসা-নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন রৌশন আরা। এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএসএস (অনার্স), এমএসএস ডিগ্রি অর্জন করেন। সমাজবিজ্ঞান বিভাগ থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন শেষে বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে ১৯৮৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে রৌশন আরা পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেন। কর্মজীবনে তিনি পুলিশের হিসাবরক্ষণ বিভাগে সহকারী পুলিশ কমিশনার, রিজার্ভ অফিস, ট্র্যাফিক বিভাগ এবং ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রশিক্ষণ ইউনিটে গুরুত্ব পদে দায়িত্ব পালন করেন।

দেশের বাইরেও কীর্তিমান পুলিশ অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন রৌশন আরা। তিনি কসোভোয় জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে ক্রাইম অ্যানালাইসিস অফিসার, সুদানে আনমিস-আনপোল শান্তিরক্ষা মিশনের চিফ অব স্টাফ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

রৌশন আরা ১৯৯৮ সালের ৩ ডিসেম্বর প্রথম নারী পুলিশ সুপার হিসেবে পদোন্নতি পেয়ে মুন্সীগঞ্জে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৮ সালের ৬ নভেম্বর তিনি অতিরিক্ত আইজিপি হিসেবে পদোন্নতি পান। পুলিশ বাহিনীতে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ দুইবার আইজিপি ব্যাচপ্রাপ্ত হন এবং বাংলাদেশ সরকারের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পুলিশ পদক ‘পিপিএম’লাভ করেন। ১৯৯৮ সালে তিনি মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার থাকাকালীন ‘অনন্যা শীর্ষ দশ-১৯৯৮’পুরস্কার ও ২০১২ সালে ইন্টারন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অব উইমেন পুলিশের স্কলারশিপ অ্যাওয়ার্ড ২০১২ অর্জন করেন।

রৌশন আরা বেগম বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস উইমেন্স নেটওয়ার্কের প্রতিষ্ঠাকালীন নির্বাহী সদস্য ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ পুলিশ উইমেন নেটওয়ার্কের সাবেক সভাপতি ও এক কন্যা সন্তানের মা ছিলেন।

পি