logo
  • ঢাকা রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

নৈতিক গুণাবলি সম্পন্ন নারীর হাত ধরে পরবর্তী প্রজন্ম সফল হয়: মোরশেদ আলম

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৮ মার্চ ২০১৯, ২২:০৩ | আপডেট : ০৮ মার্চ ২০১৯, ২৩:৩৮
শিক্ষিত, সৎ ও নৈতিক গুণাবলি সম্পন্ন নারীর হাত ধরে পরবর্তী প্রজন্ম সফল হয়। কারণ নারী একজন পুরুষের পাশে কখনো মা, কখনো বোন এবং কখনো স্ত্রী হিসেবে থেকে পুরুষের সফলতার লক্ষ্যে পৌঁছানোর পথকে মসৃণ করে দেয়। বললেন আরটিভি'র চেয়ারম্যান আলহাজ মোরশেদ আলম এমপি। 

শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের বলরুমে ‘জয়া আলোকিত নারী ২০১৯’ সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আরটিভি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা(সিইও) সৈয়দ আশিক রহমান। 

মোরশেদ আলম বলেন, আজ আট মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। এ দিবসের মধ্যমণি নারী সমাজ।  সারাবিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আরটিভি সমাজের প্রতি নারীদের ত্যাগের অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বিগত ৬ বছর ধরে আলোকিত নারী সম্মাননা পদক দিয়ে আসছে। সমাজের নানা পিছুটান ছুড়ে ফেলে বাংলাদেশের নারীরা দেশের বিভিন্ন খাতে অবদান রেখে আসছেন। আমাদের দেশের নারীরা রাষ্ট্রপ্রধান থেকে শুরু করে বিভিন্ন খাতে দায়িত্ব পালন করছেন। এদেশের নারীরা এভারেস্ট জয়ের মতো দুঃসাধ্য কাজ করে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। দেশের সমাজ, সংস্কৃতি, খেলাধুলা পুরুষদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে নারীরাও সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে। 

তিনি বলেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বলেছিলেন কোন কালে একা হয়নি ক' জয়ী পুরুষের তরবারি, প্রেরণা দিয়াছে, শক্তি দিয়াছে বিজয়-লক্ষ্মী নারী। আর নেপোলিয়ন বোনাপার্ট বলেছেন- তুমি আমাকে শিক্ষিত মা দাও, আমি তোমাকে শিক্ষিত জাতি দিবো। জয়া আলোকিত নারী সম্মাননা পদকের মাধ্যমে নারীদের অসামান্য অবদানের প্রতি যদি সামান্য সম্মান দেখানো যায়, তাহলে এই আয়োজন সার্থক হবে বলে আমি মনে করি। 

অনুষ্ঠানে আরটিভির ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন বলেন, আন্তর্জাতিক নারী দিবসের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের জন্য আরটিভি গত ৬ বছর ধরে ব্যাপক আয়োজনের মাধ্যমে আলোকিত নারী সম্মাননা পদক প্রদান করছে। আজ সবাই স্বীকার করেন একটি সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে পুরুষদের পাশাপাশি নারীদের অংশগ্রহণ জরুরি। কোনও কোনও ক্ষেত্রে অপরিহার্য। আরটিভি শুধু প্রচারের মাধ্যমে তাদের কর্মকাণ্ড সীমাবদ্ধ রাখেনি। আমরা অনুষ্ঠান প্রচারের পাশাপাশি বাংলাদেশের সৃজনশীল সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে নিবিড়ভাবে জড়িয়ে আছি। আমরা দৃঢ়ভাবে মনে করি শুধু মুনাফা অর্জনই একটি প্রতিষ্ঠানের লক্ষ্য হতে পারে না। মুনাফার একটি অংশ যাতে দেশের মেধাবী ও সৃষ্টিশীল মানুষের পৃষ্ঠপোষকতার কাজে ব্যবহৃত হয়, সে প্রচেষ্টা থাকা উচিত। যেসব মহীয়সী নারী সম্মাননা পাচ্ছেন, তাদের জানাই আন্তরিক অভিনন্দন। 

সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রতিনিয়ত অনেক মহীয়সী নারী বিশেষ অবদান রাখছেন। আলোকিত করছেন সমাজ। এসব আলোকিত নারীদের মধ্য থেকে ৮ পুরোধা নারী ব্যক্তিত্বকে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে ‘জয়া আলোকিত নারী ২০১৯’ সম্মাননা প্রদান করছে দেশের জনপ্রিয় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভি। এবার এ পুরস্কারের সপ্তম আসর।

এ বছর যারা সম্মাননা পেয়েছেন-বিজ্ঞান গবেষণায়- ড. ফিরদৌসী কাদরী, অভিনয় (চলচ্চিত্র)- শবনম, সমাজসেবা- জহিরন বেওয়া, সংগীত- জয়তী চক্রবর্তী (ভারত), সমাজসেবা- মালেকা খান, স্বাবলম্বী- নয়ন সেলিনা, নারী উদ্যোক্তা- ড. রুবানা হক, ক্রীড়া (নারী হুইলচেয়ার বাস্কেটবল খেলোয়াড়) রত্না আক্তার নদী।

সম্মাননা প্রদানের পাশাপাশি ছিল সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। এতে নৃত্য পরিবেশন করেন সাবিলা নূর, হৃদি শেখ ও নুসরাত ফারিয়া। নৃত্যে সহযোগিতা করে ঈগল ড্যান্স গ্রুপ। নৃত্যের কোরিওগ্রাফি করেন তানজিল। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন ভারতীয় সংগীতশিল্পী জয়তী চক্রবর্তী।

এমসি/এসএস/কে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়