Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

করোনার মধ্যে নতুন আ'তঙ্ক ডেঙ্গু, এক মাসে আ'ক্রান্ত দুই হাজারের বেশি মানুষ (ভিডিও)

করোনা মহামারির মধ্যে রাজধানীতে নতুন আতঙ্কের নাম ডেঙ্গু। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬৪ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এক মাসে আক্রান্ত হন দুই হাজারের বেশি মানুষ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সব শ্রেণির মানুষ সচেতন না হলে ডেঙ্গু পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করবে।

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর মীরহাজারীবাগে থাকেন সোহরাওয়ার্দী কলেজের ছাত্র মেহেদী হাসান। সেখানেই এক সপ্তাহ আগে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হন তিনি। অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মেহেদী হাসানের মা জানান, তার অবস্থা খুবই খারাপ ছিল। রক্ত দেওয়ার পর এখন একটু ভালো আছে।

হাসপাতালটিতে মেহেদীর মতো আরও ৯৫ জন রোগীকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। শুধু গত এক দিনেই সেখানে ভর্তি হয়েছেন ২৭ জন রোগী।

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত অপর এক রোগীর স্বজন জানান, ডাক্তার তরল জাতীয় খাবার খেতে বলেছেন। কিন্তু রোগীকে কিছুই খাওয়াতে পারছি না।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, গত এক মাসে দুই হাজারের বেশি মানুষ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন চার জন। ২৯ জুলাই ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৮১ জন আর ৩০ জুলাই ১৬৪ জন।

রাজধানীর পুরান ঢাকার স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের ডা. মাহবুব হোসেন খান আরটিভি নিউজকে বলেন, গত কয়েক দিন ধরে করোনার পাশাপাশি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে। করোনা এবং ডেঙ্গুর লক্ষণ একই রকম। আমরা আসলে বুঝতে পারি না আসলে করোনা আর কোনটা ডেঙ্গু হয়েছে।

সিটি করপোরেশন বলছে, রাজধানীর সায়েদাবাদ, যাত্রাবাড়ী, মগবাজার, মালিবাগ, রামপুরা ও পল্টন এলাকা ডেঙ্গুর হটস্পট। এসব এলাকা তারা বেশ কয়েকটি অভিযান চালিয়ে জরিমানাও করেছেন। কিন্তু এসব এলাকায় গিয়ে দেখা যায় ডেঙ্গু নিয়ে মানুষের মধ্যে নেই কোনও মাথাব্যথা।

জাতীয় প্রতিষেধক ও সামাজিক চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানের (নিপসম) করোনা ল্যাবের ভাইরোলজিস্ট ডা. মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন আরটিভি নিউজকে বলেন, বৃষ্টিপাত যতদিন চলবে ডেঙ্গুর আক্রান্ত এবং এডিস মশার সংখ্যা বাড়তে থাকবে। এটির পিক কোথায় গিয়ে ঠেকবে এটা বলা মুশকিল।

তিনি আরও জানান, মানুষ সচেতন না হওয়ায় সরকারের উদ্যোগ কাজে আসছে না। পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার আগেই এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংস করতে হবে।

এসজে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS