logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

‘শিশুবক্তা’কে  মুক্তি না দিলে  হেফাজতের কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি

রফিকুল ইসলাম

রাষ্ট্রবিরোধী ও উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ার মাধ্যমে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে শিশুবক্তা হিসেবে পরিচিত মুখ রফিকুল ইসলামকে আটক করেছে র‍্যাব।

বুধবার (৭ এপ্রিল) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলামের মুক্তির দাবি জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম।

বিবৃতিতে মাওলানা আজিজুল হক বলেন, ‘অবিলম্বে মাওলানা রফিকুল ইসলামকে মুক্তি দিন। অন্যথায় এ দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব ও আলেম-ওলামার ইজ্জত রক্ষা এবং মসজিদ-মাদরাসা হেফাজতে দল-মত নির্বিশেষে লড়াই করতে আপামর জনগণ সর্বদা প্রস্তুত আছে। কোনো অপশক্তির গুম-খুন বা হুমকি-ধমকিকে নায়েবে রাসূল ওলামায়ে কেরাম ও তৌহিদী জনতা পরোয়া করে না।’

আজিজুল হক বিবৃতিতে আরও বলেন, বাংলাদেশের একজন সুপরিচিত তরুণবক্তা মাওলানা রফিকুল ইসলামকে গতরাতে নেত্রকোণা জেলার নিজ বাড়ি থেকে র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেয়া হয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, ‘রফিকুল ইসলাম একজন জনপ্রিয় ওয়ায়েজ। কুরআন ও হাদিসের আলোকে সমকালীন প্রেক্ষাপট নিয়ে গঠনমূলক আলোচনা করেন। তার বয়ানে দেশের কল্যাণে মানুষের অন্তরে ঈমানী চেতনা জাগ্রত হয়। দেশের প্রতি ভালোবাসার তাগিদে জনগণকে অন্যায়-জুলুম ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে জাগ্রত হওয়ার আহ্বান করেন। এটা তার অপরাধ হলে দেশের প্রচলিত আইনের মাধ্যমে তাকে আইনের আওতায় আনতে পরতেন। কিন্তু কোনো ধরনের পূর্ব মামলা ছাড়া বিনা কারণে তাকে ধরে নিয়ে যাওয়া নাগরিকদের প্রতি রাষ্ট্রের অন্যায় কী পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে এটা তার জ্বলন্ত প্রমাণ।’

এর আগে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের বিরোধীতা করে নানা উস্কানিমূলক বক্তব্য প্রদান করেন রফিকুল ইসলাম। রাজধানীর মতিঝিল এলাকায় মোদি বিরোধী বিক্ষোভ থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। পরে ঘন্টা দুয়েক পর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছিল।

আরএস/এম

RTV Drama
RTVPLUS