logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

১০ম বিজেএস ফোরামের প্রথম নির্বাচন সম্পন্ন, সভাপতি আশেকুর, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল 

১০ম বিজেএস ফোরামের প্রথম নির্বাচন সম্পন্ন, সভাপতি আশেকুর, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল 

১০ম বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিসের (বিজেএস) ফোরামের নির্বাহী পরিষদের প্রথম নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এতে সদস্যদের সরাসরি ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগের রিসার্চ এ অ্যান্ড রেফারেন্স অফিসার (সহকারী জজ) মুহাম্মদ আশেকুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন সুনামগঞ্জের সহকারী জজ মোহাম্মদ নাজমুল হোসাইন।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) ফোরামের অস্থায়ী কার্যালয় বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউট-এর সম্মেলন কক্ষে ভোট গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

নির্বাচনে অন্যান্যদের মধ্যে সহ-সভাপতি পদে রাঙামাটির জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আসাদ উদ্দিন মো. আসিফ এবং যশোরের সহকারী জজ জোহরা খাতুন নির্বাচিত হয়েছেন। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন শেরপুরের সহকারী জজ মো. শরীফুল ইসলাম খান এবং গাইবান্ধার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী ফখরুল আবেদীন।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কিশোরগঞ্জের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. আশিকুর রহমান নির্বাচিত হয়েছেন। কোষাধ্যক্ষ পদে নির্বাচিত হয়েছেন সুনামগঞ্জের সহকারী জজ আনোয়ারুল কবির। বাগেরহাটের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তন্ময় গাইন হয়েছেন ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক। দপ্তর সম্পাদক পদে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শোভন শাহরিয়ার নির্বাচিত হয়েছেন। আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে ভোলার সহকারী জজ সুমাইয়া রিজভী মৌরী, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে সিরাজগঞ্জের সহকারী জজ মোছা. নাহিদ রহমান শরীফ ঊর্মি, এবং প্রচার ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক পদে হবিগঞ্জের সহকারী জজ স্মরণিকা পাল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।

ভোট গণনা ও ফলাফল ঘোষণা অনুষ্ঠানে প্রধান পর্যবেক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জুডিসিয়াল সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শরীফ এ এম রেজা জাকের এবং বিশেষ পর্যবেক্ষক হিসেবে হাইকোর্ট বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার মিটফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়াও ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, শরীয়তপুর, চাঁদপুর, বরিশাল জেলা থেকে আগত বিচারকগণ পর্যবেক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

নতুন কমিটি বিচারকদের স্বার্থরক্ষাসহ বিচার বিভাগের উন্নয়ন সাধনের মাধ্যমে দ্রুত জনগণের ন্যায়বিচার নিশ্চিতকরণ, নিজেদের ঐক্য ও আন্তঃসম্পর্ক উন্নয়ন, বিনোদন, ক্রীড়া, সংস্কৃতি ও সমাজসেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

এর আগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি সদস্যদের সর্বসম্মতিক্রমে ফোরামের গঠনতন্ত্র গৃহীত হওয়ার পর ১১ ফেব্রুয়ারি ৫ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশন ফোরামের নির্বাহী পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আপীল বিভাগের রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেন্স অফিসার সহকারী জজ মো. আবদুল ওয়াহাব।

অন্যান্য কমিশনাররা হলেন- বাগেরহাটের সহকারী জজ মো. ইমরান মোল্লা, টাঙ্গাইলের সহকারী জজ মাহবুবুর রহমান, কুড়িগ্রামের সহকারী জজ মোসলেম উদ্দিন খান ও নেত্রকোনার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শিহাব উদ্দিন। নির্বাচন কমিশন গত ১৫ ফেব্রুয়ারি সারাদেশের ৬৩টি জেলায় কর্মরত ১০ম বিজেএস-এর সদস্যদের কাছে একযোগে গোপন ব্যালট পাঠায়। ব্যালট ফেরত আসে ২০ ফেব্রুয়ারি। ১৩টি পদের বিপরীতে মোট ২২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে। সকল সদস্য তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

এসএস

RTV Drama
RTVPLUS