logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন নিয়ে বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়ার প্রামাণ্যচিত্র

Bengal Multimedia Documentary on Bangabandhu's Political Life
‘বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন ও বাংলাদেশের অভ্যুদয়’ শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্রের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ‘বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন ও বাংলাদেশের অভ্যুদয়’ শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ করেছে বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া৷ প্রামাণ্যচিত্রটি গবেষণা, চিত্রনাট্য, আবহসঙ্গীত ও পরিচালনা করেছেন সৈয়দ সাবাব আলী আরজু। শুক্রবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সে প্রামাণ্যচিত্রটির উদ্বোধনী প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়৷

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম, আরটিভির চেয়ারম্যান মোরশেদ আলম এমপি, আরটিভির ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসিম উদ্দিন, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, নজরুল ইসলাম বাবু এমপি, নাট্যজন আতাউর রহমান, বাংলাদেশ পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের প্রধান হাবিবুর রহমান, আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান, আরটিভির অনুষ্ঠান প্রধান ও প্রামাণ্যচিত্রটির নির্বাহী প্রযোজক দেওয়ান শামসুর রকিব, প্রশাসন বিভাগের উপ-প্রধান মোহাম্মদ মাসুদুল আমিন প্রমুখ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন আরটিভির ডেপুটি হেড অব নিউজ মামুনুর রহমান খান।

এসময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, একটি গোষ্ঠী নতুন প্রজন্মকে বিকৃত ইতিহাস জানিয়ে বিকৃত মানুষ তৈরি করতে চেয়েছিল৷ শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে এসব দূর করেছেন৷ নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে যত জানাতে পারবো আমাদের স্বাধীনতা ততো অর্থবহ হবে।

রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় বঙ্গবন্ধু বিতর্কহীন ছিলেন৷ মুক্তিযুদ্ধের পর স্বাধীনতাবিরোধীরা তাকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করেছে৷ এ অপচেষ্টা রুখে দিতে হবে৷

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, বঙ্গবন্ধু মহাকালের মহানায়ক৷ কাল থেকে কালান্তর পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু প্রেরণা যোগাবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে৷ তাকে নিয়ে যত গবেষণা হবে তাকে ততো খুঁজে পাওয়া যাবে৷

আরটিভির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোরশেদ আলম এমপি বলেন, আরটিভি সবসময় মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে এবং দেশের জনগণের পক্ষে কথা বলে। এ প্রামাণ্যচিত্রটি তরুণ প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে জানান দিবে।

সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধু ইতিহাসের সেই মহানায়ক যার জন্ম হয়েছিল বলেই আমরা একটি স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি। এ প্রামাণ্যচিত্রটি আমরা ইংরেজিসহ একাধিক ভাষায় অনুবাদ করে সমগ্র বিশ্বে ছড়িয়ে দেয়ার প্রক্রিয়ায় রয়েছি।

সৈয়দ আশিক রহমান প্রযোজিত ২ ঘণ্টা ২৭ মিনিটের দৈর্ঘ্যের এ প্রামাণ্যচিত্রটিতে রয়েছে বঙ্গবন্ধুর উন্মেষ পর্ব (১৯২০-১৯৪৭), বঙ্গবন্ধুর জাতীয় রাজনীতিতে পদার্পণ (১৯৪৭-১৯৫৪), বঙ্গবন্ধুর উত্থানপর্ব (১৯৫৫-১৯৬৩), স্বাধিকার ও অভ্যুত্থান পর্ব (১৯৬৩-১৯৬৯), ঐতিহাসিক নির্বাচন পর্ব (১৯৭০), স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ পর্ব (১৯৭১) এবং স্বদেশ, বিশ্বনায়ক ও প্রয়াণ পর্ব (১৯৭২-১৯৭৫)।

ইতিহাস সংরক্ষণে আরটিভির এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানান উপস্থিত বিশিষ্টজনেরা।

পি/জিএ 

RTV Drama
RTVPLUS