logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

সত্যের কাছে হেরে মিন্নি গেলেন প্রিজন ভ্যানে

Rifat, borguna,
আদালতে মিন্নি
আলোচিত ঘটনা বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় মিন্নিসহ ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মামলার অন্য আসামিদের বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।

বুধবার সকাল থেকে সবার নজর ছিল আদালত পাড়ায়! বাবাকে সাথে নিয়ে মিন্নি এসেছিল রায় শোনার জন্য। কিন্তু ভাগ্য মিন্নির সহায় হয়নি। মিন্নির মনের ভাবনায় হয়তো ছিল মুক্তির আশা। কিন্তু আদালতের রায়ে তার আশা ভঙ্গ হয়।  

বাবার কাছে সন্তান সবসময় সেরা, মিন্নিও বাবার চোখে আলোর দিশারী। সত্যের কাছে হেরে মিন্নি গেলেন প্রিজন ভ্যানে করে। ঘড়ির কাটা যেমন করে ভয়ানকভাবে পর করে দেয় সময়ের তরে। আদালতের রায় তেমনভাবে সত্যকে জানান দিয়ে ভাগ্য নির্ধারণ করলো মিন্নির।

রিফাত হত্যার চিত্রটি এখনও মানুষের চোখের সামনে দৃশ্যমান। মঙ্গলবার যখন সংবাদ মাধ্যমে জানানো হলো রিফাত হত্যার রায় হবে  ৩০ সেপ্টেম্বর বুধবার। তখন থেকে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু মিন্নি। কারণ এই ঘটনার পর থেকে মিন্নি একটি চরিত্র নয় শুধু, রহস্যময় একটি অধ্যায় শুরু হয়েছিল। তবে আদালতের রায়ে রহস্যতম গল্প শেষ হলো।

মিন্নি যখন আদালতে যাচ্ছিল তখন তার গায়ে ছিল সাদা রঙ এর জামা। সাদা রঙ কখনো কখনো কারো জন্য হয়তো শান্তির পরশ হয়ে দেখা দেয় না! মিন্নির ক্ষেত্রেও তা হায়েছে বলে মনে করছেন অনেকে।

সারাদেশের মানুষ রিফাত হত্যার পর থেকে মিন্নিকে চেনেন। অন্যদিকে মিন্নির বাবা প্রায় সময় সংবাদ মাধ্যমে বলেছেন তার মেয়ে এই ঘটনার সাথে জড়িত নয়। সারদেশের মানুষ আমার মেয়েকে বিশ্বাস করে। মিন্নিকে দেখলে সবাই সেলফি তুলতে আসে। 

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে শত শত লোকের উপস্থিতিতে স্ত্রীর সামনে রিফাত শরীফকে (২৫) কুপিয়ে হত্যা করা হয়। পরে রিফাতকে কুপিয়ে হত্যার একটি ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ভাইরাল হয়। ঘটনার পরদিন ১২ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও পাঁচ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন রিফাতের বাবা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ।

আরও পড়ুন 

জিএম/এমকে

RTV Drama
RTVPLUS