বিতর্কিত ওয়েব সিরিজ সরানো নিয়ে সরকারের নিষ্ক্রিয়তায় হাইকোর্টের রুল

প্রকাশ | ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৪৫ | আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:২৮

আরটিভি নিউজ
হাইকোর্ট

বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ওয়েব সিরিজের বিতর্কিত ভিডিও’র অংশগুলো সরিয়ে ফেলতে কর্তৃপক্ষের নিষ্ক্রিয়তাকে কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে এই সংক্রান্ত একটি নীতিমালা প্রণয়নে নির্দেশ কেন দেয়া হবে না রুলে সেটিও জানতে চাওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আর আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. তানভীর আহমেদ।

তিনি বলেন, বিটিআরসি, সাইবার পুলিশ ব্যুরোর ডিআইজিকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। এর আগে গত ১৫ জুলাই ওটিটি প্লাটফর্মে ছড়িয়ে পড়া ওয়েব সিরিজের অনৈতিক, নিন্দনীয় ও আইন বহির্ভূত ভিডিও’র অংশগুলো সরিয়ে ফেলতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি এসবের সঙ্গে জড়িতদের বিষয়ে অনুসন্ধান করে একটি প্রতিবেদন দাখিলেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই নির্দেশ দেন।

উল্লিখিত বিষয় ছাড়াও নেটফ্লিক্সের মতো অন্যান্য ওটিটি প্লাটফর্মগুলো থেকে কিভাবে সরকারি রেভিনিউ সংগ্রহ করেন তা এক মাসের মধ্যে বিটিআরসিকে জানাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত। সংশ্লিষ্টরা কোনো প্রতিবেদন দাখিল করেনি, দীর্ঘদিন পর মামলাটি হাইকোর্টের নতুন বেঞ্চে শুনানির জন্য কার্যতালিকায় আসে। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার শুনানি হয়েছে। আদালত রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীকে ওয়েব সিরিজ বিতর্কের অগ্রগতি জানাতে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর সময় বেঁধে দিয়েছেন। 

আইনজীবী তানভীর আহমেদ গত ১৪ জুন বাংলাদেশি ওয়েব সিরিজের বিতর্কিত অংশ বাদ দিতে সংশ্লিষ্টদের একটি আইনি নোটিশ দেন। তবে সে নোটিশের কোনো জবাব না পেয়ে তিনি গত ১২ জুলাই হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন। সেই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত এ আদেশ দিলেন। 

জিএ/পি