• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫

পাস করেছেন স্টিভ রোডসও

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৯ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৪২ | আপডেট : ০৯ আগস্ট ২০১৮, ১৯:০৮
কোচ ছাড়াই অনেকদিন ধরে খেলছিল বাংলাদেশ। হাতুরু সিংহে চলে যাওয়ার পর হার-জিতের মধ্য দিয়েই যাচ্ছিল টাইগাররা। যা ইঙ্গিত করছিল হাতুরু ছাড়া খানিক দিশেহারা হয়ে পড়ছিল সাকিব-তামিমরা।

দীর্ঘ আট মাসের লম্বা সময়ের অপেক্ষার পর বাংলাদেশ দলের সাথে যোগ দিয়েছেন ইংলিশ কোচ স্টিভ রোডস। ৫৪ বছর বয়সী এই সাবেক ইংলিশ ক্রিকেটার জাতীয় দলের হয়ে টেস্ট খেলেছিলেন মোটে ১১টি। ওয়ানডেতে মাত্র ৯ ম্যাচ। তবে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটের ক্যারিয়ারটা বেশ পোক্ত।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : এশিয়া কাপ খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ সাকিবের
-------------------------------------------------------

আগামী বছর তথা ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ আসর বসবে রোডসের দেশেই। তাই সব দিক ভেবে চিনতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড প্রধান কোচের দায়িত্বটা তাকেই দিল।

হাতুরু সিংহে নিঃসন্দেহে ভালো কোচ ছিলেন সেটা কখনোই অস্বীকার করা যাবে না, কিন্তু রোডসের শুরুটা তো অসাধারণই বলা চলে।

সাকিব-মাশরাফিদের দায়িত্ব পেয়েই তাকে দিতে হল কঠিন পরীক্ষা। দলের দায়িত্ব বুঝে পাওয়ার দুইদিন পরই দলবল নিয়ে ছুটতে হয়েছিল ক্যারিবীয় দ্বীপের উদ্দেশ্যে।

সফরের শুরুতে প্রথম দুই টেস্টে লজ্জার হারে নীল হতে হয়েছিল তাকেও। এরপরই ঘুরে দাঁড়ানোর পালা।

ওয়ানডে সিরিজে মাশরাফির নেতৃত্বে ২-১ ম্যাচে সিরিজ জয়। তারপর একইভাবে টি-টোয়েন্টি সিরিজও জয়।

সব মিলে দারুণ খুশি স্টিভ রোডস। আজ সকালে দলের সাথে দেশে ফেরেন কোচ নিজেও। শাহাজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে নেমে কথা বলেন দীর্ঘ সফর নিয়ে।

রোডস বলেন, এই সফরে কি ছিল না। ধবল ধোলাইয়ের পর টানা দুই সিরিজ জয়। তবে টেস্ট সিরিজে ওমন বাজে ভাবে হারের পর আমি খুব মর্মাহত হয়েছিলাম। কিন্তু ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টিতে ঘুরে দাঁড়ানোয় খুব গর্ব হয়েছে। ওয়ানডে সিরিজ নিয়ে আশাবাদী ছিলাম তবে টি-টোয়েন্টির ফলাফল আমাকে অবাক করেছে।

টাইগার কোচ আরও বলেন, ওয়ানডেতে দেশ, দেশের বাইরে হরহামেশা জয় পেলেও টি-টোয়েন্টিতে সেটা খুব কম। তবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের হারিয়ে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয় অনেক বেশি গর্বের। 

আরও পড়ুন :

এমআর/ এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়