ম্যাচ জিতে মসজিদের টয়লেট পরিষ্কার করলেন লিভারপুল তারকা

প্রকাশ | ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৪৮ | আপডেট: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৪:২৬

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন

সেনেগালের বাম্বালি গ্রামের একটি মসজিদের ইমামের ঘরে ১৯৯২ সালে জন্ম। দেশটির জেনারেশন ফুট নামের অ্যাকাডেমিতে ছোট পায়ে লাথি দিয়ে ফুটবল জীবন শুরু। ২০১১ সালে ফ্রেঞ্চ ক্লাব মেল্টজ হয়ে খেলতে নেমে ইউরোপিয়ান ফুটবলে নিজের নাম লেখান। ২০১২ সালে অস্ট্রিয়ান ক্লাব রেড বুলস স্লাজবার্গের হয়ে মাঠ মাতান দুই বছরের জন্য। ওই বছরই সেনেগালের জাতীয় দলে অভিষেক। 

২০১৪ সালে শুরু হয় ইউরোপের অন্যতম জনপ্রিয় লিগ ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে পদচারণ। সাউথহ্যাম্পটনে যোগ দেন ১১.৮ মিলিয়ন পাউন্ডে। দুই মৌসুম পর ২০১৬ সালে লিভারপুলে পাড়ি জমান। ৩৪ মিলিয়ন ইউরোতে পাঁচ বছরের জন্য অ্যানফিল্ডে যোগ দিয়ে হয়ে যান সবচেয়ে দামি আফ্রিকান ফুটবলার।

জাতীয় দলের জার্সিতে ২০১২ সালের অলিম্পিক, ২০১৫ ও ২০১৭ সালের আফ্রিকান কাপ অব নেশন এবং সবশেষ ২০১৮ বিশ্বকাপে খেলেছেন। মাঠে ঢোকার আগে-পরে দোয়া আর গোল দেয়ার পর মাটিতে সেজদা দেয়ার কারণে বেশ পরিচিত। নিয়মিত ফুটবলে নজর রাখেন যারা তারা সবাই ২৬ বছর বয়সী সাদিও মানেকে একজন ধর্মপ্রাণ মুসলিম হিসেবে চেনেন। 

------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : শেষ-শুরুর প্রতিপক্ষ ভারত
------------------------------------------------------------------

গত শনিবার প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে মাঠে নেমেছিল লিভারপুল। লেইস্টার সিটির বিপক্ষের ওই ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় গোল করেন মানে। এদিন ২-১ এ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যরা।

এরপর সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। খলিল লাহের নামে এক টুইটার ব্যবহারকারীর পোস্ট করা ওই ভিডিওটি এই প্রতিবেদন তৈরি করা পর্যন্ত সাড়ে ১২ লাখ বারের বেশি দেখা হয়েছে।

এতে দেখা যায় একটি মসজিদের টয়লেটের ও ওযুখানা পরিষ্কার করছেন সেনেগালের এই তারকা। লিভারপুলের হেথারলে এলাকার আল রহমা মসজিদে নিয়মিত দেখা যায় এই ফরোয়ার্ডকে। 

ফুটবলের পাশাপাশি সুবিধা বঞ্চিতদের নিয়মিত দান করেন মানে। আর সে জন্য বেশ কয়েকবার শিরোনামও এসেছেন রেডদের হয়ে খেলা এই উইঙ্গার।

ওয়াই/এ