• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

‘ইডিয়ট’ জোকোভিচই জয় করলেন উইম্বলডন

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৬ জুলাই ২০১৮, ১২:৪১ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৮, ১২:৪৮
একদিকে ফুটবল বিশ্বকাপ অন্যদিকে উইম্বলডনে পুরুষদের ফাইনাল। রজার ফেদেরার-রাফায়েল নাদালদের ছাড়া বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীন টেনিস প্রতিযোগিতার ফাইনাল কতটা আকর্ষণের হয় সেটা নিয়ে প্রশ্ন ছিল। প্রশ্নটাও আরও ছিল কারণ অন্যদিকে, তখন চলছে ‘গ্রেট শো অন আর্থ’ খ্যাত ফুটবল মহাযজ্ঞের ফাইনাল। 

তবে সেই আশঙ্কার মাঝেও দারুণ খেলে চ্যাম্পিয়ন হয়ে নোভাক জোকোভিচ টেনিসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতায় আলো ছড়ালেন। রোববার সেন্টার কোর্টে দক্ষিণ আফ্রিকার কেভিন অ্যান্ডারসনকে ৬-২, ৬-২, ৭-৬ (৭-৩) এ স্ট্রেট সেটে উড়িয়ে সার্বিয়ান তারকা নিজের চতুর্থ উইম্বলডন তথা ১৩তম গ্র্যান্ডস্লামটা জিতে নিলেন। 
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : ফাইনালে প্রযুক্তির জয় (ভিডিও)
--------------------------------------------------------

এর আগে ২০১১, ২০১৪ এবং ২০১৫ উইম্বলডনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন জকোভিচ। এবারের উইম্বলডনে ৩১ বছর বয়সী এই তারকাকে নিয়ে অনেক বিতর্ক হয়। তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে কাইল এডমুন্ডের বিপক্ষের ম্যাচে সার্বিয়ান তারকার উদ্দেশ্যে উড়ে এসেছিল কটুক্তি। যা নিয়ে মেজাজ হারিয়েছিলেন র‌্যাংকিয়ে ১০ নম্বরে থাকা এই খেলোয়াড়। 

এরপর যখন জকোভিচ বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে সমর্থন করার কথা বলেন, তখন নিজ দেশ সার্বিয়ার  প্রেসিডেন্ট আলেকসান্দার ভুসিক পর্যন্ত টেনিসের এই মহা নক্ষত্রকে ‘ইডিয়ট’ অ্যাখা দিয়েছিলেন। সেই জকোভিচই দেশের জন্য বিশ্ব টেনিসের সবচেয়ে ধ্রুপদী ও মর্যাদাসম্পন্ন ট্রফিটা নিয়ে এলেন।   

টেনিস বিশ্বে আদরের জোকার এমন একটা চোটের কবলে পড়েছিলেন, যাতে তিনি একটা সময় ঠিক মতো হাঁটতে পারছিলেন না। বেশ কয়েক মাস আগে চোট সারিয়ে ফিরলেও কিছুতেই সুবিধা করতে পারছিলেন না। কনুইয়ের চোটের কারণে চলতি বছর সার্জারি হয় জোকারের। তারপরই এল উইম্বলডন। উইম্বলডনের আগে ফ্রেঞ্চ ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে বিদায় নিয়েছিলেন জোকোভিচ।   

আরও পড়ুন  : 

ওয়াই/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়