• ঢাকা শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮, ৫ শ্রাবণ ১৪২৫

প্রথম সেমি নিয়ে উট শাহীনের ভবিষ্যদ্বাণী কী? (ভিডিও)

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১০ জুলাই ২০১৮, ১১:৫৭ | আপডেট : ১০ জুলাই ২০১৮, ১৫:৫৯
ফ্রান্স দলে কারা হয়ে উঠতে পারেন তুরুপের তাস? বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে সেমিফাইনাল ম্যাচে কারা করবেন বাজিমাত? এদিকে সবার নজর রয়েছে। ফ্রান্স দলে তারকার কমতি নেই। গোলে পোস্টে হুগো লোরিস থেকে শুরু করে ডিফেন্সে পাভার্ড, ভারানে, উমতিতি, হার্নান্দেজ। মিডফিল্ডে রয়েছেন পল পগবা, কান্তে, মাইতুইদির মতো তারকারা। এম-বাপে, গ্রিজম্যান ও গিরোডকে সামনে রেখে আক্রমণভাগ সাজাবেন দিদিয়ের দেশম।
 
এদের মধ্যে পগবা, গ্রিজম্যান ও এমবাপের ওপর সবচেয়ে বেশি ভরসা রাখছেন সমর্থকরা। এদের যে কেউ ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারেন। অধিনায়ক গ্রিজম্যানও এরইমধ্যে ৩ টি গোল করে ফেলেছেন। কোয়ার্টার ফাইনালেও অ্যাথলেতিকো মাদ্রিদের এই তারকার গোলেই জয় পেয়েছে ফ্রেঞ্চরা। আক্রমণভাগে ২৭ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড দলের মূল ভরসা। মাঝমাঠে পগবা ও কান্তেও বেশ ফর্মে রয়েছেন। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের তারকা পগবা বড় মঞ্চে জ্বলে উঠতে জানেন। 
 
এদিকে প্যারিস সেন্ট জামের্ইর (পিএসজি) ফরোর্য়াড এম-বাপে চলতি বিশ্বকাপের সবচেয়ে বেশি গোল করা টিনএজ খেলোয়াড়। এর আগে পেলে ১৯৫৮ সালে ১৭ বছর বয়সে দেশকে বিশ্বকাপ জিতিয়েছিলেন। সেবার বিশ্বকাপে ৬টি গোল করেন ব্রাজিলের ইতিহাসে সবচেয়ে সেরা তারকা।
 
৬০ বছর আগের বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে ফ্রান্সের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক। তারপরে এত বছরে বিশ্বকাপের মঞ্চে সেমিফাইনাল ও ফাইনালে অনূর্ধ্ব ২০ কোনও খেলোয়াড় গোল করতে পারেননি। ১৯ বছর বয়সী এমবাপে কি সেই রেকর্ড ভেঙে দিতে পারবেন? সে বিষয়টি দেখতে মাঠে চোখ রাখতে হবে। তবে আপাতত উট শাহীন জানাচ্ছে, বেলজিয়ামের বিপক্ষে হাইভোল্টেজ ম্যাচে জয় পাচ্ছে তরুণ এমবাপের দল।
 
রাশিয়া বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের আগে আরব আমিরাতের ভবিষ্যৎবক্তা এই উঠ দুই প্রতিবেশী প্রতিদ্বন্দ্বী দেশের মধ্যে ফ্রান্স কেই জয়ী হিসেবে ধরে নিয়েছে। গত শুক্রবার ব্রাজিলের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচে বেলজিয়ামকে জয়ী ঘোষণা করেছিল এই উট। ফলাফল হিসেবে ২-১ গোলে হার নিয়ে রাশিয়া ছাড়তে হয় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। 
 
বাঁ থেকে গ্রিজম্যান, পগবা ও এমবাপে 
তবে কোয়ার্টার ফাইনালের শেষ দুটি ম্যাচে শাহীনের ভবিষ্যদ্বাণী ভুল প্রমাণিত হয়। ইংল্যান্ড ও সুইডেনের ম্যাচে সুইডিশদের বিজয়ী ঘোষণা করেছিল এই উট। অন্যদিকে সেমিতে ওঠার লড়াইয়ের সব শেষ ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে স্বাগতিক রাশিয়ার পতাকাকে বেছে নেয়া হয়। মধ্যপ্রাচ্যের উটটির পরাজিত ঘোষণা করা দুই দলই খেলছে সেমিফাইনালে।
 
ওয়াই/পি
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়