• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

প্রীতি ম্যাচে কে হচ্ছে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ?

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ০৬ জুন ২০১৮, ১১:৪৬ | আপডেট : ০৬ জুন ২০১৮, ১১:৫৭
ইতোমধ্যেই বাতিল হয়েছে ইসরায়েলের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচ। অথচ এই ম্যাচটিই ছিল বিশ্বকাপের আগে আর্জেন্টিনার সবশেষ প্রস্তুতি ম্যাচ। বিশ্বব্যাপী ক্ষোভের মুখে পড়ে ম্যাচটি বাতিল করার সিদ্ধান্ত জানায় এএফএ। ম্যাচটি বাতিল হয়ে যাওয়ায় আরেকটি প্রীতি ম্যাচ কার সঙ্গে খেলবে সেটি নিয়ে চিন্তায় রয়েছে মেসি অ্যান্ড কোং। 

ফক্স স্পোর্টসের বরাত দিয়ে জানা যায়, ইউরোপে বিশ্বকাপ হওয়ায় মূলত এই মহাদেশের আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিতেই ইউরোপের কোন দেশের সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ খেলতে আগ্রহী আর্জেন্টিনা। আর প্রীতি ম্যাচ খেলার এই মৌসুমে ইউরোপের অন্যান্য প্রায় সব দলই ব্যস্ত রয়েছে। তাই সম্ভাব্য দেশের তালিকায় রয়েছে মলদোভা, সান মারিনো, মাল্টা ও লিচেনস্টেইন। 

এই চার দেশের যে কোনও একটি দেশই হবে আর্জেন্টিনার সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ। ম্যাচটি ৯ জুন বার্সেলোনাতে অনুষ্ঠিত হতে পারে। 

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : রাতে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে নামছে লঙ্কানরা
--------------------------------------------------------

এদিকে আর্জেন্টিনার পক্ষ থেকে ম্যাচটি বাতিলের ঘোষণা দেয়া হলেও ইসরায়েল এখনও ম্যাচটি নিয়ে আশাবাদী। ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট মারিওসিও ম্যাক্রির সঙ্গে কথা বলে ম্যাচটি পুনরায় আয়োজনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে, মঙ্গলবার বার্সেলোনায় আর্জেন্টিনার ট্রেনিং ক্যাম্পের বাইরে সমর্থকরা জার্সিতে রক্ত মেখে প্রতিবাদ করে। পরে ইসরায়েলের সঙ্গে হতে যাওয়া প্রীতি ম্যাচটি বাতিল করে আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন।

ইতোমধ্যে ম্যাচটি বাতিল করার আর্জেন্টিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ফিলিস্তিনের ফুটবল ফেডারেশনের আন্তর্জাতিক বিভাগের পরিচালক সুসান শালাবি। তিনি বলেন, রাজনৈতিক অস্থিরতার ভেতর ইসরায়েলে খেলতে না আসার জন্য আর্জেন্টিনা দলকে অনেক ধন্যবাদ। খেলার সঙ্গে যে রাজনীতি মেশানো, এটি একটি উদাহরণ হয়ে থাকবে বিশ্বের কাছে।

আরও পড়ুন :

এএ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়