মাতৃত্বকালীন ছুটির কারণে র‌্যাঙ্কিংয়েই নেই!

প্রকাশ | ২১ মার্চ ২০১৮, ১৭:২৩ | আপডেট: ২১ মার্চ ২০১৮, ১৮:০৬

স্পোর্টস ডেস্ক

সর্বকালের সেরা নারী টেনিস তারকাদের মধ্যে সেরেনা উইলিয়ামসের নাম সবার উপরে থাকাই স্বাভাবিক। উন্মুক্ত যুগে সবচেয়ে বেশি জিতেছেন এই আমেরিকান। মোট ২৩ গ্র্যান্ড স্লাম জিতে সবচেয়ে বেশি মৌলিক শিরোপা জেতা মার্গারেট কোর্টকে কয়েকদিনের মধ্যে ছুঁয়ে ফেলবেন।

এর বাইরে মেয়েদের একক টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ে কয়েক বছর ধরেই রাজত্ব করছেন সেরেনা। মাতৃত্বকালীন ছুটির কারণে কোর্ট ছাড়ার আগেও র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে ছিলেন টেনিস কুইন। অথচ প্রায় ১৩ মাস পর কোর্টে ফেরা সেরেনার নাম এখন র‌্যাঙ্কিংয়েই নেই।

আর তাই এই মার্কিন তারকাকে মিয়ামি ওপেনে খেলতে হচ্ছে অবাছাই হিসেবে। আর এই নিয়ে শুরু হয়েছে তীব্র সমালোচনা। মা হবার পর কোর্টে ফিরলে কেন একজন খেলোয়াড়ের র‌্যাঙ্কিং কমে যাবে এনিয়ে নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: ভেনাসের কাছে সেরেনার হার
--------------------------------------------------------

এ নিয়ে মিয়ামি ওপেন টুর্নামেন্টের পরিচালক জেমস ব্লেকও প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি বলেছেন, টেনিসে কেনো মাতৃত্বকালীন ছুটিতে বিশেষ ছাড় দেওয়া হচ্ছে না? কোর্টের বাইরে যাওয়ার আগে সেরেনা তো বিশ্বের এক নাম্বারই ছিলেন। অথচ তার এখন কোনো র‌্যাঙ্কিং নেই। তাই ডব্লিউটিএ টুর্নামেন্টে যেমন মিয়ামিতেও সেরনাকে খেলতে হচ্ছে অবাছাই হিসেবে।

অবাছাই হিসেবে টুর্নামেন্ট খেলতে নামায় মিয়ামিতে প্রথম রাউন্ডেই কঠিন প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হতে হচ্ছে সেরেনাকে। এবারো মিয়ামি ওপেনের শুরুতে উদীয়মান তারকা নাওমি ওসাকার সঙ্গে খেলতে হচ্ছে মার্কিন সেনসেশনকে। যিনি সদ্য সমাপ্ত ইন্ডিয়ান ওয়েলসের চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। অবাছাই হিসেবে খেলায় এই সূচি সেরেনার জন্য অন্যায় বলে মনে করছেন ব্লেক।

সেরেনাকে এই অবস্থায় সুরক্ষা দেওয়ার দাবি তোলেন র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার চার, ‘এ রকম নিয়ম ঠিক নয়। মিয়ামি টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি (আটবার) চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন সেরেনা। তাকে আমাদের সুরক্ষা দেওয়া উচিত। কোর্টে ফেরার পর তাকে বিশেষ অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত ছিল।’

ডব্লিউটিএ অর্থাৎ নারী টেনিসের সর্বোচ্চ সংস্থা জানিয়েছে, মাতৃত্বের কারণে বিশেষ ছাড় দেওয়ার জন্য নিয়মে রদবদলের কথা ভাবা যেতেই পারে। 

ডব্লিউটিএ প্রধান স্টিভ সাইমন বলেছেন, বিশেষ করে মা হওয়ার পরে খেলোয়াড়দের কোর্টে ফেরার ক্ষেত্রে আমরা সব সময় পাশে দাঁড়াতে চেয়েছি। 

আরও পড়ুন:

ওয়াই/জেএইচ