• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

চাপমুক্ত থাকতে চাই: সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ১৮ মার্চ ২০১৮, ১৩:৩৮ | আপডেট : ১৮ মার্চ ২০১৮, ১৪:২৭
নির্ভার বাংলাদেশ, অপেক্ষা ফাইনালের। আর কয়েক ঘণ্টা পরই কলম্বোর প্রেমাদাসায় শ্রীলঙ্কার স্বাধীনতা কাপে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ আর ভারত। লঙ্কানদের স্বাধীনতা কাপের ফাইনাল কিন্তু তারাই নেই।

এমন সুযোগ বার বার আসে না। আসলেও কিছু করে দেখাতে পারেনি বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টিতে একদমই অচেনা বাংলাদেশ পর পর দুই ম্যাচে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনাল খেলবে। ভাবা যায়! এই শ্রীলঙ্কা ২০১৪ এর টি-টোয়েন্টি বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।

কার সঙ্গে জয় কার সঙ্গে হার এতসব চিন্তা করার আর সময় কই। এক কথায় পেছনে ফেরার আর দরকার নেই। গতকাল সাকিব এসেছিলেন ঐচ্ছিক অনুশীলনে, সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন গত ম্যাচের একাদশে না থাকাদের।

অনুশীলন শেষে সাকিবকে দেখা গেছে নির্ভার। ইনজুরি থেকে এত জলদি মাঠে ফিরেছেন তাই অনুশীলনের আর সময়ই পাননি। গেলো শুক্রবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বল হাতে দেখা গেছে পুরনো সাকিবকে। কিন্তু ব্যাট হাতে অচেনা।

অনুশীলন শেষে টাইগার দলপতি আসেন গণমাধ্যমের সামনে। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে এবার নিজেদের তুলে ধরার পালা। এটাইতো বড় চাপ। তবে চাপ নিতে চান না সাকিব আল হাসান। তিনি বলেন, আমরা এই ম্যাচটাও অন্য দশটা ম্যাচের মতোই খেলতে চাই। আমি অন্তত চাপ নিচ্ছি না। দলের বাকিদেরও বলবো যেন চাপ না নেন। নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলতে পারলেই হবে।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: বাংলাদেশকে নিষিদ্ধ করতে রাবাদার চিঠি
--------------------------------------------------------

কিন্তু সবাইতো আর সমান না। সাকিব বলেন, সবাইতো আর একই রকম না। এমন ম্যাচের প্রভাব কিছু না কিছু সবার উপরই পড়ে। আমার অনুরোধ থাকবে এসব মনে না করে মাঠে নামতে।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফর থেকে হারের শুরু। এরপর দেশের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলঙ্কার কাছে হার। এরপর টেস্ট, টি-টোয়েন্টি সিরিজেও একই দশা। এতসব পেছনে ফেলে ঘুরে দাঁড়াতে কষ্টই হয়েছে বাংলাদেশের। 

নিদাহাস ট্রফিতে লঙ্কানদের বিপক্ষে পর পর দুই ম্যাচ জেতায় বেড়ে গেছে প্রত্যাশাও। তবে সাকিব এসব দিকে একটুও খেয়াল দিচ্ছেন না। এক দুইটা ম্যাচ জেতা মানেই লক্ষ্য পূরণ হয়ে যাওয়া নয়। আমাদের আরও পরিণত ক্রিকেট খেলতে হবে। এমনটিও খেয়াল করিয়ে দেন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় একই ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল ম্যাচ। আছে বৃষ্টির হবার সম্ভাবনাও। লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড এ নিয়ে জানিয়ে দিয়েছে ফাইনাল ম্যাচের জন্য কোনো রিজার্ভ-ডে রাখা হয়নি। খেলা না গড়ালে দু’দলকেই চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হবে।

আরও পড়ুন: 

এমআর/এসএস 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়