• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

২০২১ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও ২০২৩ বিশ্বকাপ ভারতে

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৮:৫৬ | আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৮:৫৯
২০২১ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও ২০২৩ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের একক আয়োজন করবে ভারত। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) স্পেশাল জেনারেল মিটিংয়ে এ ব্যাপারে অফিসিয়ালি ঘোষণা করা হয়। 

১৯৮৭, ১৯৯৬ ও ২০১১ সালে ভারতের সঙ্গে অন্যতম শরিক দেশ ছিল পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ। ঘরের মাটিতে ২০১১ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। ২০১৯ সালে বিশ্বকাপের আসর বসবে ইংল্যান্ডে।

এ ব্যাপারে বিসিসিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি অমিতাভ চৌধুরি জানান, ২০২৩ বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ হিসেবে ভারতের স্লট আগেই বরাদ্দ করেছিল আইসিসি। সোমবারের সভায় আমরা এই প্রস্তাব চূড়ান্ত করেছি। শুধু বিশ্বকাপই নয়, সেই সঙ্গে তার দু’বছর আগে ২০২১ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিও আয়োজন করবে ভারত। পার্থক্য হলো, অতীতে ভারত কখনো একক ভাবে বিশ্বকাপ ক্রিকেট আয়োজন করেনি।

এদিকে ২০১৯–২০ মৌসুমে আফগানিস্তানের সঙ্গে ঘরের মাটিতে একটি টেস্ট খেলবে ভারত। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানরা পাবে প্রথম পাঁচদিনের ম্যাচের স্বাদ। ভারতীয় বোর্ডের একজন কর্মকর্তা জানান, ‘‌২০১৯ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট খেলার কথা ছিল আফগানিস্তানের। কিন্তু দু’‌দেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা মাথায় রেখেই সিদ্ধান্ত হয়েছে আফগানদের টেস্ট অভিষেক হবে ভারতের বিরুদ্ধে।’‌

পাশাপাশি পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে যে কোনওভাবেই রাজি নয় ভারত, তাও বার্ষিক সাধারণ সভায় জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। যদি না কেন্দ্রীয় সরকার সবুজ সঙ্কেত দেয়।

১৯৭৫, ১৯৭৯, ১৯৮৩ সালে টানা তিন বিশ্বকাপের আয়োজক ছিল ইংল্যান্ড।

১৯৮৭ সালে ভারত ও পাকিস্তান যৌথ আয়োজক। ১৯৯২ বিশ্বকাপে যৌথ আয়োজক ছিল অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। ১৯৯৯ সালে ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা বিশ্বকাপের আয়োজন করে। ২০০৩ দক্ষিণ আফ্রিকা, ২০০৭ ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ২০১১ সালে ভারত, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা, ২০১৫ সালে বিশ্বকাপের যৌথ আয়োজক ছিল অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড।

এদিকে ভারত ২০০৬ সালে একমাত্র চ্যাম্পিয়নস ট্রফি আয়োজন করেছিল। তবে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি আগামীতে আদৌ ২০২১ সালে আয়োজিত হবে কি না, এ নিয়ে সন্দেহ আছে। কেননা আইসিসির নতুন ওয়ানডে লিগ চালু হলে এই টুর্নামেন্ট বাতিল হয়ে যেতে পারে। যদিও এখন পর্যন্ত ২০২১ সালের আগে ওয়ানডে লিগ চালু করার পরিকল্পনা নেই আইসিসির।

এএ/ওয়াই

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়