• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

ওয়ানডেতে হাত দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না: পাপন

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১০ ডিসেম্বর ২০১৭, ২০:০৫ | আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০১৭, ২০:১৪
প্রেরণাদাতা, অকুতোভয়, লড়াকু, সত্যিকারের নেতা কোনো বিশেষণই কী তার মাহাত্ম্য বোঝাতে যথেষ্ট? বলা হচ্ছে, টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার কথা। গত ৪ এপ্রিলে শ্রীলঙ্কান ট্যুরে হঠাৎ করেই টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরের ঘোষণা দেন বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সফল এ অধিনায়ক। কিন্তু ওয়ানডে চালিয়ে যাবেন বলেও ঘোষণা দেন। 

হঠাৎ করে ম্যাশের অবসরের ঘোষণা মেনে নিতে না পেরে বিভিন্নস্থানে বিক্ষোভ করে মাশরাফি ভক্তরা। কম দূর্ভোগ পোহাতে হয়নি বিসিবিরও। ঢাকায় এসে জানান চাপে পড়েই পদত্যাগ করেছিলেন তিনি। পাশাপাশি এও বলেন, আরো বেশি চাপ দিলে ওয়ানডে থেকেও অবসরে যাবেন। এরপর সে পর্যন্ত থেমে যায় বিসিবি। 

এরপর টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে। টেস্টে আগে থেকেই ছিলেন মুশফিকুর রহিম। আজ রোববার বিসিবির নতুন কমিটি দায়িত্ব নেওয়ার পর পরই নির্বাহী পরিষদের দ্বিতীয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় সভাতেই টেস্ট অধিনায়কত্বে বড় পরিবর্তন এনেছে বোর্ড। মুশফিকুর রহিমকে সরিয়ে সাকিবের কাঁধে তুলে দেয়া হয়েছে টেস্ট অধিনায়কত্ব। শুধু অধিনায়কত্বে নয়, ডেপুটি পদেও আনা হয়েছে পরিবর্তন। তামিম ইকবালের জায়গায় এসেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

গুঞ্জন ছিল, তিন ফরম্যাটেই অধিনায়ক হতে পারেন সাকিব আল হাসান। তবে গুঞ্জনকে উড়িয়ে দিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানালেন, টেস্ট আর টি-টোয়েন্টিতেই অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সাকিবকে। ওয়ানডের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে কোনোভাবেই পরিবর্তনের কথা ভাবছে না বিসিবি।

পাশাপাশি তিন ফরম্যাটেই সাকিব কেন এখনই অধিনায়ক হতে পারবেন না, তারও একটা কারণ জানান। সাকিব তিন ফরম্যাটে অধিনায়ক হতে পারেন। তবে এখনই তা সম্ভব নয়। এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে পাপন বলেন, এখানে দু'ধরনের মতবাদ আছে। একটা আলোচনা ছিল, আমরা তিন ফরম্যাটে তিনটা অধিনায়ক করবো। যেটা নিয়ে আমরা কাজ শুরু করেছিলাম। আবার আরেকটা, একই অধিনায়ক তিন ফরম্যাটে থাকা ভাল। কাজেই দুটারই প্লাস মাইনাস আমরা দেখছি।

সাকিব ওয়ানডে নেতৃত্ব আপাতত পাবেন না, কারণ মাশরাফির মতো সফল একজন অধিনায়ক এখন ওয়ানডের দায়িত্বে। এ নিয়ে পাপন বলেন, এ মুহূর্তে হবার সুযোগই নেই। যেহেতু মাশরাফি ওডিআই ক্যাপ্টেন। কাজেই ওখানটায় হাত দেয়ার প্রশ্নই ওঠে না। এই মুহূর্তে এটার কোনো প্রয়োজনীয়তাও দেখছি না। আপাতত দু'জন ক্যাপ্টেনই থাকছেন।

যদিও জানা যায় বিসিবির আজকের পরিচালনা পরিষদের সভায় অনেক পরিচালক তিন ফরম্যাটে এক অধিনায়ক চেয়েছিলেন। অনেকেই আবার তিন ফরম্যাটে তিন অধিনায়ক রাখার পক্ষে ছিলেন। তবে এখনই ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজাকে সরানোর সুযোগ নেই। স্পষ্ট করেই জানিয়ে দেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

এএ/এপি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়