close
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৭ | ০৪ কার্তিক ১৪২৪

তিনবারের চ্যাম্পিয়নের মুখোমুখি বাংলাদেশ

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১০ অক্টোবর ২০১৭, ১৮:১৫ | আপডেট : ১০ অক্টোবর ২০১৭, ১৮:২৪
এশিয়া কাপ হকিতে তিনবারের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান। এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে উদ্বোধনী দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক বাংলাদেশ। 

বড় এ আসর শুরু হবার আগে একমাত্র প্রস্ততি ম্যাচে জাপানকে ২-১ গোলে হারিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজে স্বাগতিকরা। 

আসরে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক হিসেবে থাকছেন রাসেল মাহমুদ জিমি। সহ-অধিনায়ক হিসেবে আছেন পুস্কর ক্ষিসা মিমো।

তবে দলের জন্য দুঃসংবাদও আছে। গেলো মার্চে ওয়ার্ল্ড হকি লিগে ঘানার বিপক্ষে পঞ্চম স্থান নির্ধারণী ম্যাচে মাইকেল বেইডেনকে স্টিক দিয়ে আঘাত করেন দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় সারোয়ার হোসেন। পরে তিনটি আন্তর্জাতিক ম্যাচে নিষিদ্ধ করা হয় তাকে। নিষেধাজ্ঞা থাকায় এশিয়া কাপের গ্রুপপর্বের তিন ম্যাচ খেলতে পারছেন না তিনি।

ধারাবাহিক পারফর্মেন্স করেই চতুর্থবারের মতো শিরোপায় চোখ পাকিস্তানের। আগের সেই জৌলুস না থাকলেও বিশ্ব হকিতে এখনো নিজেদের দাপট ধরে রেখেছেন বলে দাবি পাকিস্তান দলের কোচ ফারহাদ খান।

একসময় বিশ্ব-হকির শক্তিশালী দল ও একাধিকবার অলিম্পিক ও বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ী পাকিস্তান দল দীর্ঘদিন ধরেই তাদের পুরনো গৌরব হাতড়ে বেড়াচ্ছে। তবে পুরানো প্রথা ভুলে নতুন ভাবে নিজেদের আগামনী বার্তা দিয়ে গেলেন পাকিস্তান জাতীয় হকি দলে নতুন এ কোচ।

সবশেষ ১৯৮৯ সালে এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল পাকিস্তান। আর বৈশ্বিক কোন টুর্নামেন্টে সবশেষ ২০১০ সালে এশিয়ান গেমস চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। এবার দশম এশিয়া কাপে শিরোপা প্রত্যাশী তারা।

কাল বুধবার গ্রুপ পর্বের প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। এ দলে বেশ কিছু খেলোয়াড়ের বাংলাদেশে হকি লিগে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। যার মধ্যে পাকিস্তান অধিনায়ক মোহাম্মদ ইরফান একজন। যিনি আবাহনীর হয়ে খেলে গেছে। দেখেছেন খুব কাছ থেকে জিমি-চয়নদের।

মাঠের দ্বৈরথে নামার আগে চীনের সঙ্গে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও সেরে নিয়েছে পাকিস্তান। যেখান ৩-১ গোলে জয় পাকিস্তানের। সঙ্গে নিখুত ট্যাকেল, স্ট্রেন্থ ও ডিফেন্সে তারা জানান দিয়ে গেলেন শিরোপা জিততেই ঢাকায় এসেছেন শাহবাজের আহমেদের অনুজরা।

কাল বুধবার থেকে শুরু হয়ে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত দশম এশিয়া কাপ হকির লড়াই চলবে। গেলোবারের মতো এবারের আসরে অংশ নিচ্ছে আটটি দল। দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে দলগুলো। টুর্নামেন্টের প্রতিটি ম্যাচ হবে মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে। 

ভারত, পাকিস্তান, জাপানের সঙ্গে ‘এ’ গ্রুপে রয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। গ্রুপ ‘বি’তে রয়েছে মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, চায়না ও ওমান। ফোর কোয়াটার-রুলসে এবার টুর্নামেন্টের ম্যাচগুলো হবে।

১৩ অক্টোবর ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের পর ১৫ অক্টোবর জাপানের সঙ্গে গ্রুপের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচ খেলবেন জিমি-চয়নরা।

বাংলাদেশ দল:

রাসেল মাহমুদ জিমি (অধিনায়ক), পুস্কর ক্ষিসা মিমো (সহ-অধিনায়ক), আশরাফুল ইসলাম, খোরশেদুর রহমান, অসিম গোপ, আবু সাইদ নিপ্পন, ফরহাদ আহমেদ সিটুল, রেজাউল করিম বাবু, ইমরান হাসান পিন্টু, মামুনুর রহমান চয়ন, রুম্মান সরকার, নাইম উদ্দিন, হাসান যুবায়ের নিলয়, সারোয়ার হোসেন, কামরুজ্জামান রানা, মিলন হোসেন, মাইনুল ইসলাম কৌশিক ও আরশাদ হোসেন।

ওয়াই/সি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়