close
ঢাকা, বুধবার, ২৩ আগস্ট ২০১৭ | ০৮ ভাদ্র ১৪২৪

মুক্তামনির জন্য দোয়া চাইলেন মুশফিক

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১২ আগস্ট ২০১৭, ১০:৩১ | আপডেট : ১২ আগস্ট ২০১৭, ১০:৫২
বিরল রোগে আক্রান্ত মুক্তামনির অস্ত্রোপচার শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল পৌনে ৯টায় তার অস্ত্রোপচার শুরু হয়। সকাল সোয়া ৮টায় তাকে অপারেশন থিয়েটারে নেয়া হয়।

শিশুটির সফল অপারেশন ও সুস্থতা কামনা করেছেন বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম।

শুক্রবার রাতে মুক্তামনির অপারেশনের কথা জানিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে স্ট্যাটাস দেন মুশফিক। এতে তিনি লিখেছেন, কাল (শনিবার) মুক্তামনির সার্জারি কার্যকর করা হবে। তার সুস্থতা কামনা করার জন্য আমি সবার কাছে দোয়াপ্রার্থী। ইনশাআল্লাহ্‌ সে অপারেশন এর পর খুব দ্রুত আমাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে ফিরবে। সবাই দোয়ার মধ্যে তাকে স্মরণ করবেন আশা করছি।

গেলো মঙ্গলবার সকালে মুক্তামনির চিকিৎসার জন্য গঠিত ১৩ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড তার বায়োপসি রিপোর্ট পর্যালোচনা করেন। এর পরই অস্ত্রোপচারের এ দিন ধার্য করা হয়।

ঢামেক বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, মুক্তামনির জীবন রক্ষার্থে যদি তার রোগাক্রান্ত হাতটি কেটে ফেলতে হয়, তবে তাই করবেন। অবশ্য হাতটি রাখার আপ্রাণ চেষ্টা করা হবে।

গেলো ৫ আগস্ট মুক্তামনির ডান হাতের বায়োপসি সম্পন্ন হয়। সেদিনও তার জন্য সবার কাছে দোয়া চান মুশফিক। ডা. সামন্ত লাল সেনকে পাঠানো খুদে বার্তায় (এসএমএস) মিস্টার ডিপেন্ডেবল খ্যাত ব্যাটসম্যান লেখেন, ইনশাআল্লাহ, টিভিতে মুক্তামনির অস্ত্রোপচারের খবর দেখেছি। আমি আমার বোনের জন্য দোয়া করবো।

এর আগে অসুস্থ হয়ে ঢামেকে ভর্তি হলে মুক্তামনিকে দেখতে যান মুশফিক।

মুক্তামনির বিরল রোগ নিয়ে সম্প্রতি গণমাধ্যমে ঢালাওভাবে সংবাদ প্রকাশ ও প্রচার হয়। আলোচনার ঝড় ওঠে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। অবশেষে ১১ জুলাই ঢামেকের বার্ন ইউনিটে তাকে ভর্তি করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন।

সাতক্ষীরার কামারবাইশালের দরিদ্র মুদি দোকানদার ইব্রাহিম হোসেনের যমজ দু’মেয়ে হীরামনি ও মুক্তামনি। হীরামনি সম্পূর্ণ সুস্থ থাকলেও মুক্তামনি বিরল এক ধরনের চর্মরোগে আক্রান্ত। এ রোগে তার ডান হাত ফুলে কোলবালিশের মতো হয়ে গেছে। পুঁজ থাকায় ছড়াচ্ছে দুর্গন্ধ। জন্মের পর থেকেই নাকি এ টিউমারটি দেখা দিয়েছিল ওর হাতে। তবে ৬ বছর পর্যন্ত বড় হয়নি। এরপর থেকেই সমস্যা শুরু।

সাতক্ষীরা, ঢাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় নানা চিকিৎসা করেও কোনো কাজ হয়নি। কেউ ধরতেই পারেনি এ রোগ। 

ডিএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়