মরণোত্তর দেহদান করলেন তসলিমা নাসরিন

প্রকাশ | ২২ মে ২০১৮, ২৩:৪৫ | আপডেট: ২২ মে ২০১৮, ২৩:৫০

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
ছবি: সংগৃহীত

মরণোত্তর দেহদান করলেন বিতর্কিত নারীবাদী লেখিকা তসলিমা নাসরিন

সোমবার রাতে নিজের নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্টে দেয়া এক পোস্টে একথা জানিয়েছেন তিন।

তসলিমা নাসরিন জানান, মরণোত্তর দেহ দান করেছিলাম কলকাতা মেডিকেল কলেজে ২০০৫ সালে। কিন্তু কলকাতার দরজা তো আমার জন্য বন্ধ। অগত্যা দিল্লির এইইএমএস হাসপাতালে মরণোত্তর দেহদানের ব্যবস্থা করলাম।

এর আগে তিনি এক ফেসবুক পোস্টে বলেছিলেন, মুসলিম ধর্মে শুধু ধনিদের গরিবদেরকে খাবার, অর্থ ও জামাকাপড় দানের বিষয়টি আমার ভালো লাগে।

কিন্তু তারা(ধনি মুসলিমরা) এটা করে শুধু জান্নাতে যাওয়ার জন্য। দারিদ্র্য দূর করার জন্য তারা এটা করে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ময়মনসিংহে ১৯৬২ সালের ২৫ আগস্ট জন্ম নেয়া তসলিমা নাসরিন বিংশ শতকের আশির দশকে একজন উদীয়মান কবি হিসেবে সাহিত্যজগতে প্রবেশ করেন।

এই শতকের শেষের দিকে নারীবাদী ও ধর্মীয় সমালোচনামূলক রচনার কারণে আন্তর্জাতিক খ্যাতি লাভের পাশাপাশি বিতর্কিত হন তিনি।

তিনি তার রচনা ও ভাষণের মাধ্যমে লিঙ্গসমতা, মুক্তচিন্তা, ধর্মনিরপেক্ষ মানবতাবাদ ও মানবাধিকারের প্রচার করায় ধর্মীয় মৌলবাদী গোষ্ঠীদের রোষানলে পড়েন।

হত্যার হুমকি পাওয়ায় ১৯৯৪ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশ ত্যাগ করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাস করতে বাধ্য হন। তিনি কিছুকাল যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করেন।

বর্তমানে ভারত সরকার কর্তৃক অজ্ঞাতবাসে অবস্থানের সুযোগ পেয়ে সেখানে বসবাস করছেন তিনি।

কে/