সংবিধান লঙ্ঘন করে খালেদার বিচার করা হচ্ছে: ফখরুল

প্রকাশ | ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:১৬ | আপডেট: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:০১

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

সংবিধান এবং প্রচলিত আইন অনুযায়ী কোনও অসুস্থ নাগরিক সুস্থ না হলে বিচারকার্য চালানো যায় না। এটা সম্পূর্ণ অমানবিক এবং সংবিধান পরিপন্থী। কিন্তু সংবিধান লঙ্ঘন করে খালেদা জিয়ার বিচার করা হচ্ছে। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে  তিনি এ অভিযোগ করেন।

তিনি আরও বলেন, গতকাল বিকেলে খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার পরিবারের সদস্যরা সাক্ষাত করেছেন। তারা জানিয়েছেন, তিনি খুবই সুস্থ। তার বা হাত ও বাম পা প্রায় অবশ হয়ে গেছে। অসহ্য ব্যথা অনুভব করছেন তিনি। তার কোনও চিকিৎসা হচ্ছে না। আমরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন তার স্বাস্থ্য নিয়ে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে তাকে মিথ্যা সাজানো মামলায় শাস্তি দিয়ে কারাগারে বেআইনিভাবে আটক রাখা হয়েছে।

ফখরুল বলেন, খালেদা জিয়াকে পরীক্ষা করে চিকিৎসকরা বলেছেন, তিনি মারাত্মকভাবে অসুস্থ। অবিলম্বে বিশেষায়িত হাসপাতালে স্থানান্তর করে তাকে চিকিৎসা দেয়া তার জীবন রক্ষার জন্য অতি প্রয়োজন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে এবং আসন্ন নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রেখে একতরফাভাবে নির্বাচন এবং নিজেদের নির্বাচিত ঘোষণা করার নীলনকশার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে আওয়ামী লীগ।

সারা দেশে হাজার হাজার নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদের নির্বাচন থেকে দূরে সরিয়ে রাখার হীনপ্রচেষ্টায় সরকার লিপ্ত রয়েছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব।
------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : রেলপথে উত্তরবঙ্গ সফরে যাবেন কাদের, বক্তব্য রাখবেন স্টেশনে স্টেশনে
------------------------------------------------------------------

অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল। অন্যথায় সব দায়দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে। বিশেষ করে সংবিধান ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে তাদের অভিযুক্ত হতে হবে।

‘কারা কর্তৃপক্ষকেও স্পষ্টভাবে বলতে চাই, আপনারা প্রজাতন্ত্রের কর্তৃপক্ষ। আপনাদের দায়িত্ব সুস্পষ্টভাবে আইন ও বিধান দ্বারা পরিচালিত। এ দায় আপনাদেরকেও বহন করতে হবে।’ যোগ করেন বিএনপির মহাসচিব।

জিয়াউর রহমানের সময় কর্নেল তাহেরকে কারাগারে আদালত বসিয়ে বিচার করা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্য প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, তখন মার্শাল ল’ ছিল।

কারাগারে খালেদার সঙ্গে তার সহকারী ফাতেমা কোন আইনে জেলে আছেন জানতে চাইলে ফখরুল পাল্টা প্রশ্ন করে বলেন, খালেদা জিয়াকে কোন আইনে আটক রাখা হয়েছে, আমরা সেটা জানতে চাই।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আব্দুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী,  চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি প্রমুখ।

আরও পড়ুন :

জেবি/জেএইচ