• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

ইভিএম পদ্ধতিতে হেরে গেলে অজুহাতের সুযোগ নেই, তাই বিরোধিতা

সিলেট প্রতিনিধি
|  ৩১ আগস্ট ২০১৮, ০৯:২৭ | আপডেট : ৩১ আগস্ট ২০১৮, ১২:৫৩
ইভিএম (ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন) পদ্ধতিতে নির্বাচনে হেরে গেলে অজুহাত দেয়ার সুযোগ নেই, তাই বিএনপি এর বিরোধিতা করছে। ইভিএম নিয়ে তাদেরে এ অভিযোগ অবান্তর। বললেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ(শুক্রবার) সকালে সিলেট সার্কিট হাউজে সাংবাদিকেদের এ কথা বলেন তিনি।

কাদের বলেন, ইভিএম পদ্ধতি নিয়ে পাঁচ কমিশনারের মধ্যে একজন ভিন্ন মত দিতেই পারেন। এটিই গণতন্ত্রের বৈশিষ্ট্য।

বৃহস্পতিবার ইসি বৈঠকে জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের বিধান রেখে আরপিও সংশোধনের প্রস্তাব করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এটি আইনমন্ত্রণালয়ে পাঠনো হবে।

তবে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে পর্যাপ্ত প্রস্তুতি না থাকায় এর বিরোধিতা করে নোট অব ডিসেন্ট(আপত্তিপত্র) দেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। তিনি বৈঠক থেকে বের হয়ে আসেন।
-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ইভিএম নিয়ে ইসি কমিশনারদের মাঝে মতপার্থক্য হতেই পারে: তোফায়েল
-------------------------------------------------------

কাদের বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ সরকার নয়, নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের দরকার। নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ থাকলে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব। যারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন, তাদের দরকার নির্বাচনটা নিরপেক্ষ হবে কি না? 

তিনি বলেন, বাংলাদেশে নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে অনেক সংশয় থাকে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নির্বাচন সুষ্ঠুই হয়। ৫ জানুয়ারি নিয়ম অনুযায়ী নির্বাচন হয়েছে, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হয়েছে। নির্বাচন কমিশন ফ্রি, ফেয়ার নির্বাচন করেছে। 

মন্ত্রী বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার দেশে আর আসবে না। নির্দিষ্ট একটা দলের জন্য নির্বাচন থেমে থাকবে না। গণতান্ত্রিক দেশে নির্বাচনে অংশ নেয়া বিএনপির অধিকার, সুযোগ নয়। কোনো গণতান্ত্রিক দেশে সরকার কোনও দলকে সুযোগ দেয় না।

এর আগে বৃহস্পতিবার সিলেটে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনায় সেতুমন্ত্রী বলেন, সংলাপের দরজা বিএনপিই বন্ধ করে দিয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুর খবর পেয়ে ২০১৫ সালে গুলশানে খালেদা জিয়ার বাসায় যখন গিয়েছিলেন, তখন গেটের দরজা বন্ধ করে তাকে ঢুকতে দেয়া হয়নি। বিএনপি সেদিন গেটের দরজা বন্ধ করে সংলাপের দরজা বন্ধ করে দিয়েছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, জিয়া শুধু বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেই ক্ষান্ত হয়নি, তার দল বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড ছুঁড়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে প্রাণে মারার চেষ্টা করেছে।

আরও পড়ুন :

জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়