দুই শিক্ষার্থীকে মারধরে ছাত্রলীগের তিন নেতা-কর্মী বহিস্কার

প্রকাশ | ১৫ জুলাই ২০১৮, ২০:১৬ | আপডেট: ১৬ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় ছাত্রলীগের তিন নেতা-কর্মীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে প্রশাসন। 

রোববার সন্ধ্যায় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই বিষয়টি জানানো হয়েছে।  

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানিও এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরটিভি আনলাইনকে বলেন, প্রাথমিক তদন্ত শেষে কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাদের সাময়িক বহিষ্কারের করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির চূড়ান্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর তাদের স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে।  
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : শিক্ষার্থীদের বাঁচাতে যাওয়া সেই ঢাবি শিক্ষক জীবন শঙ্কায়
--------------------------------------------------------

বহিষ্কৃতরা হলেন, মো: সিফাত উল্লাহ, মো: আল ইমরান, মো: মাহফুজুর রহমান। জানা গেছে, তারা সূর্যসেন হল ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম সারোয়ারের অনুসারী।

গত শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আসাদুজ্জামান তার বিভাগের এক বান্ধবীসহ বিকেল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের (রেজিস্ট্রার বিল্ডিং) সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। এমন সময় ১০-১২ ছাত্রলীগ কর্মী তাদের সামনে এসে দাঁড়ায়। 

শুরুতে তারা দুই শিক্ষার্থীর পরিচয় জানতে চায় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ড দেখাতে বলে। পরে আসাদুজ্জামানকে মারধর শুরু করে তারা। বন্ধুকে হামলা থেকে বাঁচাতে গেলে মারধর করা হয় সঙ্গে থাকা ওই ছাত্রীকেও।

ঘটনার পর রাত ৯ টার দিকে ওই ছাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রাব্বানীকে ফোন দিয়ে ঘটনা জানান। পরে রাত দশটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সূর্যসেন হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মাকসুদ কামাল এসে ভুক্তভোগীদের বক্তব্য শোনেন। পরে ভুক্তভোগীদেরকে ঘটনার বিবরণ দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর বরাবর একটি দরখাস্ত লিখেন। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

আরও পড়ুন : 

এসজে/জেএইচ