পেট্রোলে পুড়িয়ে মারার সময় তো মানবাধিকারের কথা শুনি নাই: মতিয়া

প্রকাশ | ০২ জুন ২০১৮, ২১:১৮ | আপডেট: ০২ জুন ২০১৮, ২১:৫৪

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

মাদকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যুদ্ধ ঘোষণায় যারা মানবাধিকারের কথা বলছেন, ২০১৪ সালে খালেদা জিয়ার নির্দেশে বাবার সামনে ছেলেকে পেট্রোলে পুড়িয়ে মারার সময় তাদের মুখে তো মানবাধিকারের কথা শুনি নাই।

বলেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী।

শনিবার দুপুরে নিজের নির্বাচনী এলাকা শেরপুরের নালিতাবাড়ি উপজেলার কাপাসিয়া শহীদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে দরিদ্র মানুষের মাঝে বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, যুবসমাজকে রক্ষার জন্য, নতুন প্রজন্মকে বাঁচানোর জন্য মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। নেশার টাকার জন্য যে ছেলে বাবাকে মেরে ফেলে, সেই বাবার কি মানবাধিকার নেই?

তিনি বলেন, ঐশী নেশাগ্রস্ত অবস্থায় বাবা-মাকে হত্যা করল। ঐশীর মানবাধিকার আছে। তার বাবা-মায়ের কোনও মানবাধিকার নেই? মাদকাসক্তদের হাতে যারা মারা যান, তাদের মানবাধিকার নেই?

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে ধরতে বাসায় অভিযান
--------------------------------------------------------

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য আরও বলেন, যারা মারেন, তাদের জন্য আমাদের কাঁদতে হবে? একথা বলে এই অভিযান বন্ধ করা যাবে না। শেখ হাসিনা বাপের বেটি, তিনি যা ধরেন তা করেই ছাড়েন।

তিনি বলেন, যুবসমাজ আর আগামী প্রজন্মকে রক্ষা করতে মাদকবিরোধী অভিযান চলছে এবং অভিযুক্তরা যে দলেরই হোক না কেন তাদের রেহাই দেয়া হবে না।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন নালিতাবাড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান মোখলেছুর রহমান রিপন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউল হোসেন মাস্টার, সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হকসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে ৫০৪ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে কাপড় ও ৫০০ টাকা, ৩ হাজার ১২০ জন নারীকে শাড়ি ও ৬৮০ জন যুবককে ট্রাউজার-গেঞ্জির সেট বিতরণ করা হয়। এছাড়া ১২ হাজার দরিদ্র মানুষকে ১০ কেজি করে ভিজিএফ চাল ও খেজুর দেয়া হয়।

আরও পড়ুন : 

কে/পি