• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের পথে জনতার স্রোত

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৭ মার্চ ২০১৮, ১৩:০২ | আপডেট : ০৭ মার্চ ২০১৮, ১৩:১৪
জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে মানুষের ঢল নেমেছে।

বঙ্গবন্ধুর এ ভাষণ দেয়ার স্মৃতি বিজড়িত স্থান সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত জনসভায় যোগ দিতে বুধবার সকাল থেকেই  রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে আসতে শুরু করেন আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের প্রতিটি প্রবেশ পথ দিয়ে সুসজ্জিত পোশাকে মিছিল নিয়ে প্রবেশ করছেন অংশগ্রহণকারীরা। এরই মধ্যে কানায় কানায় ভরে উঠেছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। 

বেলা দুইটায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বক্তব্য রাখবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

এদিকে ৭ই মার্চ উপলক্ষে আওয়ামী লীগ আজ ভোরে বঙ্গবন্ধু ভবন ও দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় এবং দলীয় পতাকা উত্তোলন করে। বুধবার সকাল ৭টার দিকে রাজধানীর ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ৭ই মার্চ পালন করতে আওয়ামী লীগ এবং এর সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনসহ দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। 

১৯৭১ সালের এ দিনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) জনসমুদ্রে তৎকালীন পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সর্বাত্মক অসহযোগ আন্দোলনের ডাক দেন। কালজয়ী ভাষণে বজ্রকন্ঠে তিনি ঘোষণা করেন এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম। বঙ্গবন্ধুর এই আহ্বান বিদ্যুৎ বেগে ছড়িয়ে পড়ে সারা দেশে। স্বাধীনতার স্বপ্নে জেগে ওঠে পুরো জাতি। ক্ষেত্র প্রস্তুত হয় স্বাধীনতা সংগ্রামের। 

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কালজয়ী এ ভাষণ পৃথিবীর অন্যতম সেরা রাজনৈতিক ভাষণগুলোর একটি। কোনো ধরনের পূর্ব প্রস্তুতি ছাড়া ওই দিনের ভাষণ ছিল মূলত বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষণা। 

গেলো বছরের ৩০ অক্টোবর ৭ই মার্চের 'মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড' (বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য) হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়।

আরও পড়ুন: 

এমসি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়