• ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৩ আশ্বিন ১৪২৫

রোজা ভাঙে যেসব কারণে

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ২০ মে ২০১৮, ১৫:৩৬ | আপডেট : ২০ মে ২০১৮, ১৫:৫৩
শুরু হয়েছে সংযমের মাস পবিত্র মাহে রমজান। সারা বিশ্বের মুসলমানরা এ মাসটিতে সংযম ও ইবাদত বন্দেগির মাধ্যমে নিজেদের আত্মশুদ্ধির জন্য কাজ করেন। রোজার ছওয়াব সম্পর্কে আল্লাহ তায়ালা নিজেই বলেন, নিশ্চয়ই রোজা আমার জন্য আর এর প্রতিদান স্বয়ং আমিই দেব। (মুসলিম শরীফ, ১১৫১/১৬৫)। আজ আমরা জানবো যেসকল কারণে রোজা ভেঙে যায়। এছাড়াও যেসব কারণে রোজা ভেঙে ফেললে কাযা ওয়াজিব হয় সে সম্পর্কেও অবগত হবো।

যেসব কারণে রোজা ভেঙে যায়

১. ইচ্ছাকৃতভাবে কোনো কিছু পানাহার করা।

২. ইচ্ছা করে মুখ ভর্তি বমি করা।

৩. পাথর লোহার টুকরা বা ফলের আটি ইত্যাদি গিলে ফেলা।

৪. এমন জিনিস পানাহার করা যা খাদ্য বা ওষুধ রূপে ব্যবহার হয়।

৫. কান বা নাকের ভিতর ওষুধ দেয়া।

যেসব কারণে রোজা ভেঙে ফেললে কাযা ওয়াজিব হয়

১. ইচ্ছা করে মুখ ভর্তি বমি করা।

২. কোনো অখাদ্য বস্তু খেয়ে ফেললে।

৩. কুলি করার সময় অনিচ্ছায় পানি পেটে চলে গেলে।

৪. সন্ধ্যা বিবেচনায় সূর্যাস্তের আগে ইফতার করলে।

৫. জোরপূর্বক রোজাদারকে কেউ পানাহার করালে।

৬. তরল ওষুধ লাগানোর কারণে তা পেটে বা মস্তিষ্কে পৌঁছে গেলে।

৭. সুবেহ সাদেক মনে করে ভোরে পানাহার করলে।

৮. ঘুমন্ত অবস্থায় কিছু খেয়ে ফেললে।

৯. দাঁত থেকে ছোলা পরিমাণ কোনোকিছু বের করে গিলে ফেললে।

১০. ভুলবশত কিছু খেয়ে রোজা ভঙ্গ হয়েছে ধারণা করে ইচ্ছাপূর্বক আবার খেলে।

কেএইচ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়