৮৩ তে পা রাখলেন যতীন সরকার

প্রকাশ | ১৮ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৫৫ | আপডেট: ১৮ আগস্ট ২০১৮, ১৫:২৪

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট

প্রাবন্ধিক, সমালোচক, গবেষক ও রাজনীতিবিদ অধ্যাপক যতীন সরকারের আজ ৮৩ তম জন্মদিন। এ উপলক্ষে নেত্রকোনায় লেখকের বাসভবন ‘বানপ্রস্থে’ বিকেলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে জন্মদিন উদযাপন পর্ষদ ও কয়েকটি সাংস্কৃতিক সংগঠন। অনুষ্ঠানে সমবেত সংগীত পরিবেশন এবং বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠনের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন, কেক কাটা, মানপত্র পাঠ ও উত্তরীয় প্রদানের আয়োজন করা হয়েছে।

এর আগে সকালে লেখকের বাসভবনে দিনটি শুরু হয় প্রদীপ প্রজ্বলনের মাধ্যমে।

অধ্যাপক যতীন সরকারের জন্ম ১৯৩৬ সালে এই দিনে কেন্দুয়া উপজেলার চন্দপাড়া গ্রামে। বাবা জ্ঞানেন্দ্র সরকার হোমিও চিকিৎসক ছিলেন। মা বিমলা বালা সরকার গৃহিণী। স্ত্রী কানন সরকার। অধ্যাপক যতীন সরকার দুই সন্তানের জনক। ছেলে সুমন সরকার চিকিৎসক এবং মেয়ে সুদিপ্তা সরকার যুগ্ম জেলা জজ হিসেবে কর্মরত।

যতীন সরকার আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ছোট বেলা থেকে শিক্ষক হওয়ার স্বপ্ন থেকেই শিক্ষক হয়েছি। তবে লেখক হবো, মানুষকে জ্ঞান দিব সেরকম ইচ্ছা ছিল না। কিন্তু না চাইলেও লেখক হয়েছি, আর এই ৮২ বছরের জীবনে ৪০টির বেশি বই প্রকাশ হয়েছে।
-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : নায়ক ফারুকের জন্মদিন আজ
-------------------------------------------------------

তিনি বলেন, যখন আমার বয়স ৫০ বছর তখন প্রথম বই প্রকাশ হয়। ঘনিষ্ট বন্ধু বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামছুজ্জামান দুদুসহ আরও কয়েকজনের অনুরোধে প্রথম বই প্রকাশের অনুমতি দেই।

যতীন সরকার বলেন, চরম দারিদ্র্যতার মধ্যে আমার শিক্ষা জীবন কাটলেও কখনো বই থেকে বিমুখ হইনি। আর এখন শেষ জীবনেও বই-ই আমার সঙ্গী। আমি পরবর্তী প্রজন্মকেও অনুরোধ করবো বই থেকে যেন কখনই বিচ্ছিন্ন না হয়।

অধ্যাপক যতীন সরকার ১৯৬৪ সালে ময়মনসিংহের নাসিরাবাদ কলেজে বাংলা বিভাগে শিক্ষকতা শুরু করেন। আর ২০০২ সালে একই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে অবসর নেন। এরপর ২০০৫ সালে তিনি নেত্রকোনায় স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। তিনি বাংলা একাডেমি ও স্বাধীনতা পদক পেয়েছেন।
 

আরও পড়ুন : 

এমকে/জেবি