close
ঢাকা, রোববার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৩ পৌষ ১৪২৪

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার যুক্তিতর্ক ১৯ ডিসেম্বর

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পদের অপব্যবহার করিনি : খালেদা

অনলাইন ডেস্ক
|  ০৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৬:৪৩ | আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০১৭, ১৬:৫০
প্রধানমন্ত্রীর পদে থাকার সময় কোনোভাবেই আমার পদের অপব্যবহার করিনি। কারো কোনো অর্থের দ্বারা আমি লাভবান হইনি; কাউকে লাভবান করিনি। আমার পদের অন্যায় প্রভাব খাটাইনি। বললেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও তার মন্ত্রিপরিষদের সদস্যরা বিভিন্ন সময় তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কথা বলেছেন।

আজ (মঙ্গলবার) বকশীবাজারে আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলার আত্মপক্ষ সমর্থনের বক্তব্য উপস্থাপনের সময় খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, আমি কাউকে কোনো অন্যায় আদেশ প্রদান করিনি। আমি আমার পদে থাকার সময় কারো কোনো অর্থের দ্বারা ব্যক্তিগতভাবে লাভবান হইনি। কাউকে অনৈতিকভাবে লাভবান করিনি।

বেগম জিয়া বলেন, আমার দুর্নীতির সঙ্গে কোনো ধরনের সম্পৃক্ততা নেই বা ছিল না। আর আমার বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলায় যারা সাক্ষ্য দিয়েছেন তারাও অসত্য বলেছেন।

খালেদা বলেন, আমি সম্পূর্ণ নির্দোষ। এ মামলা থেকে বেকসুর খালাস পাওয়ার যোগ্য। আমি দুদক আইনের তালিকাভুক্ত কোনো অপরাধ করিনি। কোনোরূপ দালিলিক প্রমাণ ছাড়া পনের দিনের ব্যবধানে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ দাখিল করা হয়। তারা আপনার আদালতে আমার বিরুদ্ধে কোনো তথ্য প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারেনি।

তিনি দাবি করেন তার বিরুদ্ধে এই মামলা করা হয়েছে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যমূলকভাবে। রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ বানোয়াট ও অপ্রমাণিত।

এ মামলায় আগামী ১৯, ২০ ও ২১ ডিসেম্বর যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের দিন ঠিক করেন আদালত।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায়ও একই দিনে সাফাই সাক্ষীর জন্য দিন ঠিক রয়েছে। আদালতে আজ শুরুতেই জামিন চাইলে আদালত আলাদা দুই মামলায় তা মঞ্জুর করেন।

জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়