close
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০১৭ | ০৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

ক্যাপ্টেন শহিদুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ১৪:২৫ | আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০১৭, ১৪:২৯
ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার ক্যাপ্টেন শহিদুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমলে নিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। তার বিরুদ্ধে তিনটি অভিযোগ আনা হয়েছে।  

মঙ্গলবার বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল অভিযোগ আমলে নেয়ার এই আদেশ দেন।

এর আগে আসামি ক্যাপ্টেন শহিদুলের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) দাখিল করেন প্রসিকিউটর আবুল কালাম আযাদ।

পরে প্রসিকিউটর আবুল কালাম আযাদ জানান, একাত্তরে মানবতাবিরোধীদের পাকিস্তানি আর্মিদের মধ্যে ক্যাপ্টেন শহিদুল ছিলেন অন্যতম। ট্রাইব্যুনালের বিচারের মুখোমুখি হওয়া আর্মি অফিসারদের মধ্যে তিনিই প্রথম।

গত বছরের ২ আগস্ট ক্যাপ্টেন শহিদুলকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। তার বিরুদ্ধে হত্যাসহ তিনটি মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ রয়েছে।

মামলার বিবরণী থেকে জানা যায়, ক্যাপ্টেন শহিদুল ১৯৬২ সালে প্রথমে পাকিস্তান বিমানবাহিনীতে যোগ দেন। এরপর ১৯৬৫ সালে তিনি পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়ে ১৯৬৭ সালে কমিশন্ডপ্রাপ্ত হয়ে সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট হন। এরপর ১৯৬৯ সালে ক্যাপ্টেন হিসেবে পদোন্নতি পান। ১৯৭০ সালে তাকে ঢাকা ক্যান্টনমেন্টে পোস্টিং দেওয়া হয়।

১৯৭১ সালে মহান যুদ্ধচলাকালীন ক্যাপ্টেন শহিদুলকে তার নিজ এলাকা কুমিল্লার দাউদকান্দিতে পাঠানো হয়। সেখানে শহিদুলের নেতৃত্বে প্রায় ১৪০/১৫০ জন পাকিস্তানি সেনা সদস্য নিয়ে স্থানীয় স্কুল ও ডাক বাংলোয় ক্যাম্প স্থাপন করা হয়। এরপর ওই এলাকায় হত্যা, অগ্নিসংযোগ ও লুটতরাজের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটিত হয়।

এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়