• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

নবমীতে পঞ্চ ব্যঞ্জন

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৮:৪৮ | আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৮:৪৯
শারদীয় দুর্গোৎসবে ভোজনরসিক বাঙালির ভুরিভোজ না হলেই নয়।পূজাকে উপলক্ষ করে আপ্যায়নের জন্য হিন্দু পরিবারের ঘরে ঘরে তৈরি করা হয়ে থাকে বাহারি রকমের খাবার। তবে নবমীর এ দিনে সাধারণত পঞ্চ ব্যঞ্জন তৈরি করা হয়।

তাহলে জেনে নেয়া যাক এসব খাবারগুলো তৈরি করতে কি কি উপকরণ লাগবে এবং কীভাবে তৈরি করবেন।

সয়াবিনের তরকারি

উপকরণ : সয়াবিন ২৫০ গ্রাম, আলু ৫০০ গ্রাম, তেল ২৫০ গ্রাম, ঘি ১০০ গ্রাম, জিরা বাটা ২ চা চামচ, মরিচ বাটা ১ চা চামচ, হলুদ ১ চা চামচ, গরম মসলা ১ চা চামচ, তেজপাতা ২টি, কাঁচা মরিচ ২-৩টি, লবণ পরিমাণ মতো।

প্রণালী : সয়াবিনগুলো ভালো কলে ধোয়ে ১৫ মিনিটের মতো পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। তারপর হলুদ ও লবণ মাখিয়ে সয়াবিনগুলো ভাজুন। এরপর একইভাবে হলুদ ও লবণ মাখিয়ে আলুগুলো ভাজুন। পরে সসপ্যানে তেল ঢেলে জিরা ও তেজপাতার ফোড়ন দিন। এরপর জিরা, মরিচ, হলুদ বাটা ও লবণ অল্প পানিতে গুলিয়ে সসপ্যানে দিয়ে দিন। এবার নাড়াচাড়া করে পরিমাণ মতো পানি দিন। এরপর ফুটে এলে একে একে সয়াবিন ও আলুগুলো দিয়ে দিন। কাঁচামরিচগুলো ফালি করে দিন। এবার গরম মশলা ও ঘি দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। গরম গরম পরিবেশন করুন সয়াবিনের তরকারি।

ছানার তরকারি

উপকরণ : দুধের ছানা ২৫০ গ্রাম, আলু ৫০০ গ্রাম, জিরা বাটা ৩ চা চামচ, মরিচ বাটা ১ চা চামচ, হলুদ ১ চা চামচ, গরম মসলা ২ চা চামচ, ঘি ৫০ গ্রাম, কাঁচা মরিচ ২-৩টি, তেজপাতা ২টি, জিরার ফোড়ন সামান্য।

প্রণালী : ছানার তরকারির প্রণালীও অনেকটা সয়াবিনের মতো। প্রথমে ছানাগুলো বরফির মতো কেটে নিন। এরপর সসপ্যানে তেল দিয়ে ছানার বরফিগুলো হালকা ময়দার গুলার মধ্যে ডুবিয়ে ভেজে নিন। এবার আলুগুলো হলুদ ও লবণ মাখিয়ে ভাজুন। এরপর সসপ্যানে তেল ঢেলে জিরা ও তেজপাতা ফোড়ন দিন। তারপর জিরা, মরিচ, হলুদ ও লবণ অল্প পানিতে গুলিয়ে সসপ্যানে দিয়ে দিন। এরপর নাড়াচাড়া করে পরিমাণ মতো পানি দিন। এরপর ফুটে এলে আগে আলুগুলো দিয়ে দিন। আলু একটু সিদ্ধ হয়ে এলে ছানার বরফিগুলো দিন। কাঁচামরিচগুলো ফালি করে দিন। এরপর গরম মশলা ও ঘি দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। হয়ে গেল ছানার তরকারি।

মিক্সড লাবড়া

উপকরণ : আলু ২৫০ গ্রাম, বেগুন ২৫০ গ্রাম, মিষ্টি কুমড়া ১ ফালি, মূলা ১০০ গ্রাম, কাঁকরোল ১০০ গ্রাম, ঝিঙ্গা ১০০ গ্রাম, তেল ২৫০ গ্রাম, তেজপাতা ২টি, কাঁচামরিচ ১০টি, হলুদ দেড় চামচ, চিনি আধা চামচ, ঘি ১০০ গ্রাম,পাঁচফোড়ন সামান্য।

প্রণালী : সবজিগুলো ভালো কলে ধুয়ে কেটে মিক্সড করে নিন। পরে সসপ্যানে তেল ঢেলে পাঁচফোড়ন দিয়ে সবজিগুলো দিয়ে দিন। এরপর একে একে হলুদ বাটা, তেজপাতা, লবণ, কাঁচালঙ্কা, চিনি দিয়ে ঢেকে রাখুন। মিনিট বিশেক জ্বাল হওয়ার পর ঘি দিয়ে নামিয়ে ফেলুন । হয়ে গেল মিক্সড লাবড়া।

বুটের ডাল

উপকরণ : বুটের ডাল ২৫০ গ্রাম, তেল ১০০ গ্রাম, ঘি ২৫ গ্রাম, নারিকেল কুড়ানো ১বাটি, গরম মসলা সামান্য, তেজপাতা ২টি, কাঁচালঙ্কা ৪-৫টি, শুকনা মরিচ ২-৩টি, আদা কুচি সামান্য, হলুদ ১ চামচ, লবণ পরিমাণ মতো।

প্রণালী : সসপ্যানে ১ লিটার পরিমাণ পানি দিয়ে ডালগুলো দিয়ে দিন। ডালগুলো সেদ্ধ হয়ে এলে তেল, কাঁচালঙ্কা, তেজপাতা ও আদা কুচি দিয়ে দিন। এরপর ফুটে এলে নামিয়ে রাখুন। তারপর নারিকেল কুড়ানো ভেজে ঢালে দিয়ে দিন। এরপরে একটি সসপ্যানে ঘি গরম করে শুকনা মরিচ ভেজে নিন। এবার গোটা জিরা, তেজপাতা ও গরম মশলা ( এলাচি, দারচিনি, লং) দিন। এরপর নামিয়ে রাখা ডালটুকু দিয়ে দিন। তারপর মিনিট দুয়েক রেখে ঘি দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। বেশ হয়ে গেল মজাদার বুটের ডাল।

চালতার টক

উপকরণ : চালতা ১টি, চিনি ৫০০ গ্রাম, হলুদ হাফ চামচ, তেল ৫০ গ্রাম, সরিষা ১ চিমটি, মুলা ১টি, নারিকেল কুড়ানো আধা বাটি, লবণ পরিমাণ মতো।

প্রণালী : প্রথমে চালতা কেটে পাটার মধ্যে অল্প করে ছেঁচে নিন। মুলা পাতলা করে গুলো গোল গোল করে কেটে ভাপ দিয়ে নিন। কুড়ানো নারিকেল পাটায় পিষে নিন। পরে সসপ্যানে তেল ঢেলে সরিষাগুলো দিয়ে দিন। সরিষাগুলো ফুটে সুন্দর একটি গন্ধ বের হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চালতাগুলো দিয়ে দিন। সঙ্গে মুলা ও নারিকেল বাটা দিয়ে দিন। এরপরেই পরিমাণ মতো পানি দিয়ে হলুদ ও লবণ দিন। ফুটে এলে নামিয়ে ফেলুন। বেশ হয়ে গেলো সুস্বাদু চালতার টক।

আরকে/এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়