• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

সাবধান! প্রেমে পড়বেন না

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৬ জানুয়ারি ২০১৭, ২০:৪০
চীনা নারীদের মতোই উচ্চতা, ঠিক তেমনি শারীরিক গঠন, গোলাকার মুখ, ফর্সা গালে লালচে আভা, টানা টানা চোখ, পাতলা ঠোঁট, দীঘল কালো চুল ও ঐতিহ্যবাহী কাপড় পরা। পথ চলতে হঠাৎ দেখা হয়ে যেতে পারে এমন কোনো নারীর সঙ্গে। আর এমন রমণীকে দেখে প্রথম দর্শনেই প্রেমে পড়ে যাওয়াটা স্বাভাবিক। একহারা গড়নের এ রমণীকে দেখলে যে কেউই প্রেমে পড়ে যেতে পারেন। তবে সাবধান! আগে নিশ্চিত হয়ে নিন, এ সুন্দরী কি সত্যিই মানবী নাকি মানবরূপী রোবট? আশ্চর্যজনক হলেও সত্য! এমন  মানবরূপী রোবট-ই তৈরি করেছে চীন।

রোবটটির নাম ‘জিয়া জিয়া’। অবিকল রক্ত-মাংসের মানুষের মতো দেখতে। এ সুন্দরীর সৌন্দর্য থাকলেও নেই কোনো মানবীয় অনুভূতি। কারণ, এটি কলকব্জা ও কম্পিউটার পার্টস দিয়ে তৈরি।চীনের দাবি, এ রোবট-ই হবে আসছে দিনের স্মার্ট রোবট।  

চীন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক গেলো বছর এ মানবরূপী রোবটটি তৈরির কাজ শুরু করেন। ব্যাংকিং খ্যাতের প্রভাবশালী প্রতিষ্ঠান ইউএসবি সাংহাইয়ের আধুনিক অর্থনৈতিক কেন্দ্রে সোমবার সেটির প্রোটোটাইপ হাজির করে।

মানব মূর্তিতি তৈরির সঙ্গে জড়িত দলের দলনেতা শেন জিয়াওপিংয়ের প্রত্যাশা, আসছে ১ দশকের মধ্যে চীনের রেস্টুরেন্ট, নার্সিংহোম, হাসপাতাল এবং বাসাবাড়িতে কাজ শুরু করবে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাভিত্তিক ‘জিয়া জিয়া’।

‘জিয়া জিয়া’র সঙ্গে কথাও বলা যায়। আবহাওয়া কেমন বা সাধারণ কথাবার্তার বাইরে প্রশ্নকর্তা পুরুষ না নারী তাও অবলীলায় বলে দিতে পারে। এক প্রশ্নকর্তাকে সে সরাসরি বলে দেয়, আপনি খুবই হ্যান্ডসাম। কোনো বয়ফ্রেন্ড আছে কি না? তাকে এমন প্রশ্ন করা হলে; চটজলদি উত্তর দেয়, আমি একা থাকাই বেশি পছন্দ করি।

দলনেতার মতে, চীনে এ ধরনের রোবট তৈরির জন্য ৫-১০ বছরের মধ্যে অনেক আবেদন জমা পড়বে।

আরকে/ডিএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়