ঈদে মেহেদির রঙে রাঙান নিজেকে

প্রকাশ | ২১ আগস্ট ২০১৮, ২২:৪০ | আপডেট: ২১ আগস্ট ২০১৮, ২২:৪৪

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন

কুরবানির ঈদের আগের দিন মেহেদি লাগানোর চল বহুদিনের। ঈদ মানেই উৎসব। আর উৎসব মানেই বাড়তি আয়োজন। উৎসবের রঙ আরও রঙিন করতে মেহেদির জুড়ি নেই। রঙিন সব পোশাকের সাথে হাত দুটি খালি থাকবে, তা কি আর হয়?

একটা সময় ছিল যখন ঈদের আগের দিন সবাই গাছ থেকে মেহেদি পাতা ছিঁড়ে তা বেটে মেহেদি দিয়ে লাগাতেন। ভাই-বোনেরা একসাথে হাতে মেহেদি দিতে বসতেন। এখন আর সে চিত্র নেই। তবে যতোই চিত্রের পরিবর্তন হোক মেহেদি লাগানো থেমে নেই। 

এখন পচ্ছন্দমতো ডিজাইন মাথায় রেখে পুরো হাত জুড়ে মেহেদি দেয়া হয়। ডিজাইনের জন্য ক্যালিগ্রাফিক, ফুল ও লতাপাতা নানা জাতের নকশা করা হয়। চলুন মেহেদির রঙে নিজেকে রাঙানোর আগে এ সংক্রান্ত কিছু টিপস জেনে নিন।

১. মেহেদি লাগানের আগে হাত ভালো করে ধুয়ে শুকিয়ে নিন। কোনও ধরনের ময়েশ্চারাইজার লাগানো যাবে না।

২. টিউব মেহেদি বা কৃত্রিম মেহেদি দিয়ে নকশা করার আগে হাতে একটু লাগিয়ে নিন। দেখুন এতে এলার্জি বা জ্বলুনি হচ্ছে কিনা।

৩. কেনার আগে মান ও মেয়াদ দেখুন। পার্লারে লাগানোর আগে দেখে নিন ভালো মানের নতুন মেহেদি কিনা।

-----------------------------------------------------
আরও পড়ুন : কুরবানির পশুর চামড়া ছাড়ানোর সময় যা খেয়াল রাখতে হবে
-----------------------------------------------------

৪. শিশুদের জন্য মেহেদি পাতার পেস্ট ব্যবহারই ভালো। কৃত্রিম মেহেদি কখনোই নয়।

৫. গাঢ় রঙ পেতে আগের দিন বা রাতে মেহেদি লাগানোই ভালো। সম্ভব হলে ঘুমাতে যাওয়ার কিছুক্ষণ আগে লাগিয়ে শুয়ে পড়ুন। পরের দিন সকালে তুলে ফেলুন।

৬. তোলার পরপরই হাত ধুয়ে ফেলবেন না বা পানি দিয়ে শুকিয়ে যাওয়া মেহেদি তুলবেন না।

৭. তুলে ফেলার পর কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা পানি বা সাবান ব্যবহার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন।

৮. হাত ভর্তি মেহেদি দিলে ডিজাইন যেন সূক্ষ্ম হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

৯. মেহেদির রঙ বেশি লাল করতে মেহেদি শুকিয়ে ওঠানোর পর চিনি ও লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন। এক্ষেত্রে চিনি ও লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে হাতের উপর রেখে শুকালেই রঙ বাড়বে। তাছাড়া রঙ অনেকদিন রাখতে সাবান কম ব্যবহার করুন।

আরসি/কেএইচ