• ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১০ আশ্বিন ১৪২৫

প্রাকৃতিক উপায়ে দূর হবে খুশকি

লাইফস্টাইল ডেস্ক
|  ০৭ মে ২০১৮, ১৯:১২
আরামের ঘুম হারাম করে দিচ্ছে খুশকি? খুশকি দূর করার জন্য মানুষ এখন প্রতিদিনই ব্যবহার করেন শ্যাম্পু। এতে চুলের স্থায়ী ক্ষতি তো হয়ই, খুশকি সমস্যারও স্থায়ী সমাধান হয় না।

খুশকি মূলত হয় মাথা শুষ্ক থাকলে অথবা মাথার ত্বকে কোনো সমস্যা দেখা দিলে। মাথার ত্বকের এই সমস্যাকে বলে সেবোরিক ডারমাটাইসিস। মাথার ত্বকে ফাংগাস এবং ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে হয় খুশকি। রিডার্স ডাইজেস্ট অবলম্বনে চলুন জেনে নিই কীভাবে দূর করবেন খুশকি।

অ্যাসপিরিন

মাথাব্যথার অ্যাসপিরিন জাতীয় ওষুধে থাকে স্যালিসাইলক এসিড। দুটি অ্যাসপিরিন ট্যাবলেটকে গুঁড়ো করে শ্যাম্পুর সাথে মিশিয়ে মাথায় মাখুন। এক থেকে দুই মিনিট মাথায় রেখে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। তারপর আবার শ্যাম্পু করুন।

টি ট্রি অয়েল

শ্যাম্পুতে মাখুন টি ট্রি অয়েল। তারপর ব্যবহার করে দেখুন। খুশকি তাড়াতে খুবই কার্যকর।

বেকিং সোডা

মাথার চুল ভিজিয়ে মাথার ত্বকে বেকিং সোডা মাখুন। কিছুক্ষণ রেখে মাথার চুল ধুয়ে ফেলুন। বেকিং সোডা মাথার ত্বকের ফাংগাস দূর করতে সাহায্য করে। বেকিং সোডা ব্যবহার করলে প্রথম কয়েকদিন চুল শুষ্ক লাগতে পারে। তবে সপ্তাহখানেকের মধ্যে চুলের তেলতেলে ভাবটা ফিরে আসবে।          

অ্যাপল সিডার ভিনেগার

অ্যাপল সিডার ভিনেগার নিয়মিত মাথার চুলে ব্যবহার করলে মাথার ত্বকে ইস্ট গজাতে পারে না। মাথার চুলে অ্যাপল সিডার ভিনেগার আর পানি মিশিয়ে স্প্রে করে একটি তোয়ালে দিয়ে রেখে দিন ১৫ মিনিট। তারপর ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইবার করে এই নিয়মটি অনুসরণ করুন।

মাউথওয়াশ

শুনতে অদ্ভুত মনে হলেও মাউথওয়াশ ব্যবহারে কমতে পারে খুশকি। বাজে রকমের খুশকি হলে প্রথমে চুল ধুয়ে নিন। এরপর অ্যালকোহলযুক্ত কোনো মাউথওয়াশ দিয়ে মাথার চুল ধুয়ে নিন। এবার চুলে কন্ডিশনার লাগান। মাউথওয়াশের মধ্যে থাকা অ্যান্টি ফাংগাল মাথায় খুশকি গজাতে দেয় না।

নারিকেল তেল 

গোসল করার আগে তিন থেকে ৫ টেবিল চামচ নারিকেল তেল মাথার খুলিতে মাখুন। এক ঘণ্টা পর মাথা ধুয়ে ফেলুন। এছাড়াও নারিকেল তেল আছে এরকম শ্যাম্পুও ব্যবহার করতে পারেন।

লেবু

দুই টেবিলচামচ লেবুর রস মাথার ত্বকে লাগিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আবার লেবুর রসের সাথে পানি মিশিয়ে মাথার চুলগুলো ওই পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। খুশকি যাওয়ার আগ পর্যন্ত ব্যবহার করুন।

লবণ

মাথার ভেজা চুলে লবণ ছিটিয়ে হালকা করে মাথায় মাসাজ করে নিন। অল্পসময়ের জন্য রেখে শ্যাম্পু করে নিন।

অ্যালোভেরা

মাথার ত্বকের খুশকি আর চুলকানি দূর করতে অ্যালোভেরার কোনো জুড়ি নেই। অ্যালোভেরা মাথা ঠান্ডা রাখে এবং খুশকি কমাতে সাহায্য করে।

রসুন

রসুনে অ্যান্টি-মাইক্রোবায়াল উপাদান থাকার কারণে খুশকি উৎপাদনে সাহায্য করে এমন ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করে দেয়। রসুন বেটে মাথার ত্বকে লাগিয়ে নিন। দুর্গন্ধ এড়ানোর জন্য এর সাথে একটু মধু মিশিয়ে নিন।

জলপাই তেল

মাথায় দশ ফোটা জলপাই তেল মেখে সারারাত একটি শাওয়ার ক্যাপ হিসেবে মাথায় পড়ে রাখুন। সকালে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

কেএইচ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়