• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

সাথী যখন স্কুটি

আফসানা
|  ০৭ অক্টোবর ২০১৭, ১৩:২৬ | আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০১৭, ১৪:২৭
ঢাকার ব্যস্ত রাস্তায় চব্বিশ ঘণ্টা জ্যাম এবং ট্রাফিকের ঝামেলা এড়িয়ে দ্রুত গন্তব্যে পৌঁছানো খুবই ঝামেলাপূর্ণ। অনেকের কাছেই একটি নতুন গাড়ি কেনা স্বপ্ন ছোঁয়ার মতো। তবে ঢাকার জ্যামের সঙ্গে যুদ্ধ করার হাত থেকে বাঁচার সুন্দর একটি সমাধান হতে পারে স্কুটি।

স্কুটি হলে খুব সহজে যাতায়াত করা যায়। বর্তমানে ঢাকার রাস্তায় অনেক নারীদেরকেও স্কুটি চালাতে দেখা যায়।

এখন স্টুডেন্ট থেকে শুরু করে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে স্কুটির চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আবার অনেক রাইডিংপ্রিয়রা স্কুটি চালানোকে মজার বিষয় হিসেবেও নিচ্ছে।

মনে রাখতে হবে

বাজারে নানান ব্র্যান্ডের স্কুটি পাওয়া যাচ্ছে বর্তমানে। কিন্তু আপনার সঠিক পছন্দটাই প্রাধান্য পাবে। আপনার প্রয়োজনীয়তা এবং কোন উদ্দেশে স্কুটি কিনবেন আপনাকেই সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

সেই সঙ্গে স্কুটি কেনার সময় নিজের উচ্চতা ও ওজন জেনে নেয়া ভালো। কারণ স্কুটি বিভিন্ন ওজন ও দৈর্ঘের হয়।

তাছাড়া সেটির মাইলেজ কত অর্থাৎ প্রতি ঘণ্টায় স্কুটিটি কত কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে পারে এবং তার জন্য কতটা জ্বালানি খরচ হয় সেটাও জেনে নিতে হবে।

নতুন, ব্যবহৃত না রিকন্ডিশন স্কুটি

স্কুটি কেনার আগে আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে আপনি নতুন, ব্যবহৃত না রিকন্ডিশনিং স্কুটি কিনবেন। যদি আপনার হাতে পর্যাপ্ত বাজেট থাকে তাহলে আপনি ব্র্যান্ডের নতুন স্কুটি কিনতে পারেন। যদি আরো সাশ্রয়ীমূল্যে, কোনো ওয়ারেন্টি ছাড়াই কিনতে চান সেক্ষেত্রে আপনি ব্যবহৃত বা রিকন্ডিশন স্কুটি বেছে নিতে পারেন।

নিরাপত্তা

স্কুটি শুধু কিনলেই হবে না। আগে এটি চালানো শিখতে হবে। আর চালানোর সময় যে কথাটি মনে রাখতে হবে তা হলো নিরাপত্তা। নিরাপত্তার কথা ভেবে প্রথমে আপনার হেলমেটের বিষয়ে সচেতন হতে হবে। পাশাপাশি জেনে রাখতে হবে ট্রাফিক আইন সম্পর্কে। সঙ্গে গাড়ির লাইসেন্স ও অন্যান্য জরুরি কাগজপত্র রাখতে হবে।

ঢাকার রাস্তায় স্কুটি

ঢাকার রাস্তায় যেসব ব্র্যান্ডের স্কুটি বর্তমানে চোখে পড়ে তার মধ্যে হোন্ডা, ইয়ামাহা, অ্যাপাচি, বাজাজ পালসার উল্লেখযোগ্য। তবে ইন্ডিয়ান ব্র্যান্ড টিভিএস-এর নতুন স্কুটিও চোখে পড়ছে। এরা বেশ নিত্যনতুন ডিজাইন বাজারে আনছে সম্প্রতি।

আর এসব ব্র্যান্ড চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে ক্রেতাদের সাধ্যের মধ্যে পৌঁছে দিতে প্রতিনিয়ত কাজ করে চলেছে। তাই চাইলেই আপনি ঢাকার জ্যাম নিয়ে চিন্তিত না হয়ে স্কুটিকে সঙ্গী করে নিতে পারেন।

আরকে/জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়