• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

সপ্তমীতে লুচি-সুজি, খিচুড়ি ও পায়েস

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১২:২০ | আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৪:০৬
পূজাকে উপলক্ষ করে আপ্যায়নের জন্য হিন্দু পরিবারের ঘরে ঘরে তৈরি করা হয়ে থাকে বাহারি রকমের খাবার। সপ্তমীতে সাধারণত লুচি-সুজি, খিচুড়ি ও পায়েস রান্না হয়ে থাকে।

তাহলে জেনে নেয়া যাক এ সব খাবারগুলো তৈরি করতে কী কী উপকরণ লাগবে এবং কীভাবে তৈরি করবেন।

লুচি

উপকরণ: ময়দা ৫০০ গ্রাম, ঘি ১৫০ গ্রাম, লবণ অথবা চিনি সামান্য।

প্রণালী: ময়দার সঙ্গে পরিমাণ মতো পানি, দুই চামচ ঘি ও কয়েক চিমটি লবণ অথবা চিনি দিয়ে মিহি করে মাখুন। তারপর খামির তৈরি হয়ে গেলে হাত দিয়ে ছোট ছোট গোলা তৈরি করুন। এবার ছোট ছোট করে রুটি তৈরি করে নিন। পরে কড়াই অথবা সসপ্যানে সবটুকু ঘি ঢেলে দিন। এরপরে ঘি গরম হয়ে এলে একের পর এক রুটি ছেড়ে দিন। পরে রুটিগুলো ফুলে বাদামী রং ধারণ করলে তুলে ফেলুন। বেশ হয়ে গেল মজাদার সব লুচি।

সুজি

উপকরণ: সুজি ২৫০ গ্রাম, চিনি ২৫০ গ্রাম, দুধ ২ কেজি, ঘি ১০০ গ্রাম, এলাচি ৬-৭টি, তেজপাতা ২-৩টি।

প্রণালী: সসপ্যান অথবা কড়াইতে ঘি ঢেলে সুজিগুলো নিভু নিভু আগুনে ভাজুন। সুজি হালকা বাদামী রং ধারণ করলে চিনি, এলাচি ও তেজপাতা দিয়ে দিন। মিনিটখানেক নাড়াচাড়া করে দুধটুকু ঢেলে দিন। মিনিট দশেক জ্বাল দিয়ে নামিয়ে ফেলুন সুস্বাদু সুজি।

পায়েস

উপকরণ: কালোজিরা চাল ১৫০ গ্রাম, দুধ ১ কেজি, চিনি ২৫০ গ্রাম, এলাচি ৬-৭টি, কিসমিস ৫০ গ্রাম।

প্রণালী: প্রথমে চালগুলো ভালো করে ধুয়ে পানি ঝড়িয়ে নিন। পরে সসপ্যানে দুধ ঘন করে জ্বাল দিন। দুধ জ্বাল হয়ে এলে চালগুলো দিয়ে দিন। চাল ও দুধ যেন জমাট না বাঁধে এর জন্য ভালো করে নাড়ুন। পরে চাল সিদ্ধ হয়ে এলে চিনিটুকু দিয়ে দিন। এরপর মিনিট পাঁচেক নাড়ুন। এবার এলাচিগুলো দিয়ে দিন। এরপর নামিয়ে ফেলার আগে কিশমিশগুলো দিয়ে দিন। বেশ হয়ে গেল পুজোর পায়েস।

ভুনা খিচুড়ি

উপকরণ: মুগের ঢাল ১ কেজি, কালোজিরার চাল ১ কেজি, তেল ৪০০ গ্রাম, হলুদ, আধা চা চামচ, ঘি ১০০ গ্রাম, কাঁচামরিচ ৬-৭টি, শুকনা মরিচ ৪-৫টি, আদা, জিরা, এলাচি, দারচিনি পরিমাণ মতো।

প্রণালী: প্রথমে একটি পাত্রে তেল দিয়ে আলাদা আলাদা করে ঢাল ও চাল ভেজে নিন। এবার একটি সসপ্যানে তেল দিয়ে শুকনা মরিচগুলো ভাজুন। পরে এলাচি, দারচিনি, তেজপাতা দিয়ে নাড়াচাড়া করুন। এবার ভেজে রাখা ঢাল ও চালগুলো দিয়ে দিন। একটু নাড়াচাড়া করার পর পরিমাণ মতো পানি ও লবণ দিয়ে ঢেকে দিন। তারপর নিভু নিভু জ্বালে সিদ্ধ করতে থাকুন। চাল-ঢাল সিদ্ধ হয়ে এলে কাঁচামরিচ ও আদাগুলো কুচি কুচি করে দিন। পরে ঘিটুকু ঢেলে দিন। চাল-ঢাল ঝরঝরে হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন। হয়ে গেল ভুনা খিচুরি। এরপর বেগুন, কপি অথবা যেকোনো ভাজি দিয়ে পরিবেশন করুন। সঙ্গে দিতে পারেন সয়াবিনের তরকারিও।

আরকে/জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়