• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

প্রথম মার্কিন হিজাবি মডেল হালিমা

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৪:৪১ | আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৪:৫৫

উদ্বাস্তু-সন্তান ও মার্কিন নাগরিক হালিমা এডেন ফ্যাশনের জগতে এক পথিকৃৎ৷ নিউ ইয়র্ক, মিলান ও লন্ডনের ফ্যাশন শোতে প্রথম যে মডেল হিজাব পরে রানওয়েতে নামেন, তিনি হলেন হালিমা৷

মার্কিন জাতীয় পতাকার রঙ লাল-সাদা-নীল রঙের হিজাব পরে দাঁড়িয়ে আছেন ১৯ বছরের তরুণী হালিমা এডেন।

যিনি একজন ধর্মপ্রাণ মুসলিম৷ হালিমা শুধু মাথায় হিজাবই পরেন না, শরীরও ঢেকে রাখেন৷ তবুও মার্কিন ফ্যাশন জগতে তাঁর সাফল্য ঈর্ষণীয়।  

হালিমা সম্প্রতি মার্কিন মহিলা পত্রিকা ‘অ্যালিওর’কে বলেছেন , তিনি ‘মুসলিম মহিলাদের সম্পর্কে ভুল ও বস্তাপচা ধারণা’ দূর করতে চান৷ ‘অ্যালিওর’ পত্রিকা জুলাই মাসের প্রচ্ছদ করেছে হালিমাকে দিয়ে। এছাড়া তিনি ‘ভোগ’ পত্রিকার আরব সংস্করণের আগস্ট মাসের ইস্যুর প্রচ্ছদে ছিলেন৷

২০১৭ সালের গোড়া থেকে হালিমা আইএমজি মডেলস সংস্থার মডেল, হাদিদ ভগিনীদ্বয় অথবা জিসেল ব্যুন্ডসেনের মতো সুপারমডেলরা যে সংস্থার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ৷ ব়্যাপার কেনি ওয়েস্ট-এর ফ্যাশন লেবেল ‘ইজি’ অথবা আলবের্তো ফেরেত্তির হয়েও তিনি রানওয়েতে নেমেছেন৷

হালিমার জন্ম কেনিয়ার একটি উদ্বাস্তু শিবিরে৷ ছোটবেলায় মায়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটায় আসেন । এখন সেখানেই পড়াশুনা করছেন৷ হালিমা জন্মসূত্রে সোমালি৷ তার পরিবার সোমালিয়ার গৃহযুদ্ধ থেকে কেনিয়ায় পালিয়ে আসে।

২০১৬ সালে বিকিনির বদলে বুর্কিনি পরেন হালিমা৷ মিস মিনেসোটা হলো মিস ইউএসএ সৌন্দর্য প্রতিযোগিতার প্রাথমিক পর্যায়৷ সেখানে গোড়ার দিকেই বাদ পড়েন হালিমা। কিন্তু প্রতিযোগিতার আয়োজক আইএমজি মডেলস সংস্থা তাকে মডেল হিসেবে চুক্তিবদ্ধ করে৷ উল্লেখ করা যেতে পারে, ২০১৫ সাল পর্যন্ত ইউএসএ প্রতিযোগিতার আয়োজক ছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷

হালিমা যে মডেলিং করছেন, রক্ষণশীল মুসলমানদের সেটা পছন্দ নয়৷ অপরদিকে উদারপন্থী মুসলমানদের কাছে নারীদের পরিধেয়র উপর বাধানিষেধ গ্রহণযোগ্য নয়৷ হালিমা বলেন, সৌন্দর্যই তাঁর সব কথা নয়; এছাড়া হিজাব পরার ফলে তাঁকে ‘তুই বড় মোটা হয়ে গেছিস’, ‘তুই বড় রোগা হয়ে গেছিস’ , এ সব কথা শুনতে হয় না৷

এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়