• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের ভাগ্যে জুটলো ময়ূরপঙ্খী ভ্রমণ (ভিডিও)

জুবায়ের সানি
|  ২৯ মে ২০১৭, ১৬:৩৪ | আপডেট : ২৯ মে ২০১৭, ১৭:৩৫
সরকারিভাবে সুবিধাবঞ্চিত ৩০ জন  শিশুর ভাগ্যে জুটলো প্রথমবারের মতো বিমানে চড়ার অভিজ্ঞতা। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ আয়োজন করে এমন আকাশভ্রমণের।

সুযোগ মিললো সিলেটের লাক্কাতুয়া চা–বাগান ও হজরত শাহজালাল (রা.)-এর মাজার দর্শন।

ঢাকায় ফেরার পর বিমানের পক্ষ থেকে এসব শিশুদের দেয়া হয়  ঈদের উপহারও।

`স্বপ্ন যাদের আকাশছোঁয়া, বিমান তাদের অনুপ্রেরণা’ এমন স্লোগানে সরকারি শিশু পরিবারের ১৫ জন ছেলে এবং ১৫ জন মেয়ে শিশুর ঢাকা-সিলেট পথে বিমানে চড়ার এ সুযোগ করে দিলো বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ।

২৭ মে ভোর পাঁচটায় ১৬২ আসনের যাত্রীবাহী বিমান ময়ূরপঙ্খী যখন আকাশে উড়াল দেয় তখন এসব শিশুদের চোখে মুখে ছিলো স্বপ্ন পূরণের অপরিসীম আনন্দ।

১৫ হাজার ফুট ওপর দিয়ে যখন উড়ে যাচ্ছিলো বিমানটি তখন ভেলার মতো ভেসে বেড়ানো সাদা মেঘগুলোকে বারবার ছুঁয়ে ফেলতে চাইছিল শিশুরা। আর তাদের এ আনন্দ ছুয়ে গিয়েছিলো পাইলটদের মধ্যেও।

সিলেটে পৌঁছে পাশে টিলার ওপর পর্যটনের অবকাশ কেন্দ্রে নাশতা শেষে দলটি রওনা দেয় আধা ঘণ্টা দূরত্বের লাক্কাতুয়া চা বাগানে। ছিমছাম পরিবেশের চা বাগান দেখেও মুগ্ধতা ছিল শিশুদের চোখেমুখে। পরে তাদের ঘুরিয়ে আনা হয়  হজরত শাহ জালাল (রা.) মাজারও।

ভ্রমণ শেষে এবার ঢাকায় ফেরার পালা। ফেরার উড়োজাহাজটি আরও বড়। সরাসরি লন্ডন-সিলেট রুটের ৪১৯ আসনের উড়োজাহাজটির নাম ‘পালকি’। রূপকথার মতো এ যাত্রার স্বপ্নস্মৃতি এ বিমানে চড়েই তাদের ঢাকায় ফেরা। তখনও তাদের চোখে মুখে ছিলো আনন্দের ছাপ।

এই আনন্দ ভ্রমণে অংশ নেয়া শিশুদের মধ্যে পরে ঈদুল ফিতরের উপহারসামগ্রী বিতরণ করেন বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম মোসাদ্দেক আহমেদ।

এই শিশুরা লেখাপড়ায় ভালো ফল করলে, তাদের জন্য শিক্ষাবৃত্তির ব্যবস্থা এবং শিক্ষাজীবন শেষে কর্মসংস্থানের উদ্যোগ নেবে বলে জানান বিমান কর্তৃপক্ষ।

 

আরকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়