• ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫

বর্ণাঢ্য আয়োজনে শেষ হলো ঈদ ফ্যাশন প্রতিযোগিতা (ভিডিও)

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট, চট্টগ্রাম
|  ২৬ মে ২০১৭, ১৪:০১ | আপডেট : ১০ জুন ২০১৭, ১৫:৪৪
মেয়েদের প্রধান পোশাক শাড়ি দিয়ে শুরু হয় ফ্যাশন শো। শাড়ির ডিজাইনে নতুনত্ব আনার সব চেষ্টাই ছিল ডিজাইনারদের। এছাড়া একে একে প্রদর্শিত হয় পাঞ্জাবি, সালোয়ার-কামিজ, ফিউশন ও শিশুদের পোশাক।

বরাবরের মতো এবারো বেশ উপভোগ্য হয়ে ওঠে শিশুদের কিউ। আর রঙিন পোশাক যেনো ছড়িয়ে দিলো উৎসবের বারতা। সময়ের দরজায় যে কড়া নাড়ছে ঈদ।

ক্যাটওয়াকের ফাঁকে গান করলেন দেশের সেরা শিল্পীরা। সবশেষে বিজয়ী ডিজাইনারদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেয়া হলো। এবার ১২টি বিভাগে ডিজাইনারদের পুরস্কার দেয়া হয়। আর সেরাদের সেরা হয়েছেন নাসরিন সরওয়ার মেঘলা।

এমন বর্ণাঢ্য আয়োজনে চট্টগ্রামের পাচঁতারকা হোটেল রেডিসন ব্লু বে ভিউ’তে শেষ হলো দেশীয় পোশাক নিয়ে সানসিল্ক-প্রথম আলো ঈদ ফ্যাশন প্রতিযোগিতা-২০১৭। এবারের প্রতিযোগিতার মিডিয়া পার্টনার ছিল বাংলাদেশের জনপ্রিয় টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভি।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় শুরু হয়ে চূড়ান্ত পর্বের ফ্যাশন শো ও সাংস্কৃতিক আয়োজন চলে রাত সোয়া ১০ টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত। উপস্থাপনায় ছিলেন চিত্রনায়িকা স্বাগতা।

প্রতিযোগিতার সমন্বয় করেন আরিটিভির এক্সিকিউটিভ প্রডিউসার মো. শাহারিয়ার ইসলাম এবং চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান সরোয়ার আমিন বাবু। পুরস্কার ঘোষণা করেন প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক বিশ্বজিৎ চৌধুরী।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন আরটিভি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান, চিত্রনায়িকা মৌসুমী, প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আনিসুল হক, দক্ষিণ আফ্রিকার অনারারি কনসাল সোলাইমান আলম শেঠ।

সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, ফ্যাশন ডিজাইনে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে যাচ্ছে। আমরা বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছি। মানুষ বাংলাদেশে টেক্সটাইল গার্মেন্টসের যেকোনো কাপড়ের দোকানে গেলে মেড ইন বাংলাদেশ দেখতে পায়।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের পোশাক বিশাল মাপের ব্রান্ডিং। আমরা অত্যন্ত গর্ববোধ করি বাংলাদেশের যেকোনো পণ্য ব্যবহার করে। আমাদের চেয়ে কেউ ভালোও করতে পারে না।

 চট্টগ্রামে সাংস্কৃতিক দিক থেকে বড় জায়গা আছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

মৌসুমী বলেন, এই ধরনের প্রতিযোগিতা বাংলাদেশে ফ্যাশন ডিজাইনকে আরো সমৃদ্ধ করবে; এগিয়ে নিয়ে যাবে। আজকে বাংলাদেশ ডিজাইন ও পোশাকে অনেক দূর এগিয়ে গেছে।

তিনি বলেন, আশা করি আগামীতে আরো ভালো ভালো ডিজাইনার আসবে। তাদের ছোঁয়ায় বাংলাদেশ আরো বেশি এগিয়ে যাবে।

কে/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়