• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

লেবুর দশটি স্বাস্থ্য উপকারিতা

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক
|  ১৯ আগস্ট ২০১৬, ১৭:৩৩ | আপডেট : ১০ জুলাই ২০১৭, ১৮:১৯

লেবুর অনেক গুণ রয়েছে। এর শরবত আদর্শ স্বাস্থ্যসম্মত পানীয়। লেবুর প্রধান উপকারিতা হলো ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস ইত্যাদি তৈরি করে রোগ বালাই দূরীকরণ এবং শরীরের সার্বিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি। হজম শক্তি বাড়ানো এবং যকৃৎ পরিষ্কারের মাধ্যমে ওজন কমানোর ক্ষমতাও আছে। লেবুর দশটি স্বাস্থ্য উপকারিতা দেয়া হলো।

  •  লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি ও লৌহ । যা ঠাণ্ডাজ্বর জাতীয় রোগের জন্য উপকারী। আরো আছে পটাসিয়াম, যা মস্তিষ্ক এবং স্নায়ুকে সক্রিয় রাখে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।
  •  লেবুর খোসা কালো দাগ, বলি রেখা, বার্ধক্যের ছাপ দূর করতে সাহায্য করে। ত্বক ভালো রাখতে খাবার পাশাপাশি সরাসরি ত্বকে লাগাতে পারেন।
  •  লেবুতে প্রচুর পরিমাণের ভিটামিন সি আছে । আঁশজাতীয়  পদার্থ ক্ষুধা নিয়ন্ত্রণে রাখে। ফলে ওজন কমে।
  •   দেহে প্রতিদিন 'ভিটামিন সি'র চাহিদার ৩০ শতাংশ পূরণ করতে পারে লেবু।
  •  শরীরে মূত্রের পরিমাণ বৃদ্ধি করে এবং খুব দ্রুত ক্ষতিকর ও  বিষাক্ত পদার্থ শরীর থেকে বের হয়ে যায়। মূত্রনালির স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়ক।
  •  প্রাণচাঞ্চল্য বাড়িয়ে দিতেও লেবুর জুড়ি নেই। খাবার থেকে শক্তি শোষণের পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়।  এর গন্ধে মন ফুরফুরে হয়ে যাবে। দুশ্চিন্তা এবং বিষণ্ণতা দূর করে।
     
  •  রাতে ঘুমানোর সময় যে পানি খরচ হয় তা  পূরণ হবে সকালে এক গ্লাস লেবু পানি পানে।
     
  •  ত্বকের দাগ দূর করে লেবুতে থাকা বিভিন্ন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। স্বাস্থ্যজ্জ্বল ত্বকের জন্য খুব দরকার ভিটামিন সি। ব্রণ বা অ্যাকনি সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া দূর করে।
     
  •  লেবুর রস নিঃশ্বাসে সতেজতা আনে। গরম পানির সঙ্গে লেবুর রস পানে দাঁতের ব্যথা এবং জিঞ্জিভাইটিসের উপশম হয়। এটা পানের পরপরই দাঁত ব্রাশ করবেন না, কারণ সাইট্রিক এসিড দাঁতের এনামেল ক্ষয় করে ফেলে। আগে দাঁত ব্রাশ করে তারপর পান করা ভালো। 

    আর কে /
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়