close
ঢাকা, রোববার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭ | ১৭ বৈশাখ ১৪২৪

শিশুর অটিজম কীভাবে বুঝবেন?

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি আনলাইন
|  ০২ এপ্রিল ২০১৭, ১৩:১৮ | আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০১৭, ১৪:০৭
অটিজম মস্তিষ্কজাত একটি জটিল স্নায়বিক সমস্যা। এর ফলে শিশু অন্যের সঙ্গে যোগাযোগ এবং সামাজিক সম্পর্ক তৈরিতে বাধাগ্রস্ত হয় এবং একই কাজ বা আচরণের পুনরাবৃত্তি করতে থাকে।

শিশুর মানসিক বিকাশের এ প্রতিবন্ধকতা মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় বা জন্মের পর ঘটে। সাধারণত, এর লক্ষণগুলো প্রকাশ পায় শিশুদের ১৮ থেকে ৩৬ মাস বয়সে।

জিনগত কারণ বা পরিবেশগত বিভিন্ন কারণকে দায়ী করা হলেও এখনো অটিজমের কোনো সুনির্দিষ্ট কারণ জানা যায়নি।

বর্তমানে বাংলাদেশে অটিজম আক্রান্ত শিশুর সংখ্যা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে।

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, যদি সঠিক সময়ে অটিজম আক্রান্ত শিশুকে দরকারি প্রশিক্ষণ দেয়া যায় তাহলে এরাও অন্যান্য শিশুর মতো উন্নতি করতে পারে এবং তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী তাদেরকে সমাজিকভাবে দক্ষ করে গড়ে তোলা যেতে পারে।

বাবা-মা যাতে শিশুর অটিজম সমস্যা দ্রুত ধরতে পারেন সেজন্য অটিজম বিশেষজ্ঞরা কিছু নির্দিষ্ট লক্ষণ নির্ধারণ করে দিয়েছেন। জেনে নিন এর লক্ষণগুলো কী।

১. শিশুর বিকাশ স্বাভাবিকভাবে না হওয়া বা ধীর গতিসম্পন্ন হওয়া।

২. চোখে চোখে না তাকালে বা অন্যের চোখের দিকে তাকানো পরিহার করলে।

৩. ৬ মাসের মধ্যে বা তার পরেও যদি শিশু স্বতঃস্ফূর্তভাবে না হাসে।

৪. আঙুল দিয়ে কোনো কিছু না দেখানো বা নির্দেশ না করা।

৫. হাত দিয়ে কোনো কিছু শক্তভাবে না ধরলে।

৬. শব্দের উৎসের দিকে ফিরে না তাকালে।

৭. ১ বছরের মধ্যে শিশুর নাম ধরে ডাকলে, সাড়া না দিলে।

৮. ১ বছরের মধ্যে মুখে কোনো শব্দ না করলে।

৯. আনন্দময় কোনো অঙ্গভঙ্গি বা প্রকাশভঙ্গি না করলে।

১০. ২৪ মাস বয়সের মধ্যে দু’শব্দের কোনো বাক্য না বললে।

১১. ১৮ মাসের মধ্যে কল্পিত খেলা না খেলতে না পারলে।

১২. শিশু একা একা থাকতে পছন্দ করলে।

১৩. অনবরত হাত নাড়ানো বা দোলানো, চক্রাকারে ঘুরতে থাকা, পায়ের আঙুলে ভর দিয়ে হাঁটা, নখ কামড়ানো ইত্যাদি আচরণ করলে।

১৪. ৯ মাসের মধ্যে নিকটজনদের কথা, হাসি, মুখের ভাবভঙ্গি বা অঙ্গভঙ্গির সঙ্গে ক্রিয়া প্রতিক্রিয়ামূলক আচরণ না করলে। যেমন-বাইরে যাবার সময় বাবা বা অন্য কেউ যখন শিশুকে টাটা দেয় তখন শিশুটির তা না দেয়া বা হাত না নাড়ানো।

আরকে/এএইচসি/ডিএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়