close
বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০১৮

মুসলিম নেতার বক্তব্যে টগবগ করে ফুটছে আসাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১৭ নভেম্বর ২০১৭, ০৮:৫৬ | আপডেট : ১৭ নভেম্বর ২০১৭, ০৯:০৬
ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য আসাম থেকে লাখ লাখ মুসলিমকে তাড়িয়ে সেখানে আরো একটি মিয়ানমার তৈরি করার ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এমনটাই বলেছিলেন ভারতের মুসলিম ধর্মীয় নেতা ও জামিয়ত উলেমা-ই-হিন্দের সভাপতি আরশাদ মাদানি। 

তবে এ বক্তৃতার পরপরই তোপের মুখে পড়েছেন তিনি। সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে একের পর এক মামলা দায়ের করা হচ্ছে। আসাম পুলিশও সেসব মামলার তদন্ত শুরু করেছে বেশ জোরেসোরেই।

সম্প্রতি আসামে বৈধ ভারতীয় নাগরিকদের যে তালিকা প্রকাশিত হতে যাচ্ছে; এ নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, যারা এই তালিকা প্রকাশের বিরোধিতা করবেন আসামে তাদের 'শত্রু' বলে গণ্য করা হবে। ওই বক্তব্যের পরই এ ধরনের মন্তব্য করেন মাদানি। 

আসামের নানা প্রান্তে ইতোমধ্যেই আরশাদ মাদানির বিরুদ্ধে তীব্র বিক্ষোভ হচ্ছে। বিভিন্ন দলের মুসলিম নেতারাও তার মন্তব্য নিয়ে সাবধানী প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন।

বৈধ নাগরিকদের তালিকা থেকে রাজ্যের লাখ লাখ মুসলিম বাদ পড়তে পারেন- এমন আশঙ্কার কথা জানিয়ে দিল্লিতে এ সপ্তাহে একটি সেমিনার আয়োজন করেছিল 'দিল্লি অ্যাকশন কমিটি ফর আসাম'। সেই সভায় জামিয়ত নেতা মাওলানা মাদানি’র বক্তব্য আসামে তোলপাড় ফেলে দিয়েছে।

আরশাদ মাদানি সেখানে বলেন, ‘৪০০ বছর ধরে যারা বংশ পরম্পরায় আসামে বসবাস করছেন তাদের আপনি বাংলাদেশি বলে বাইরে ছুড়ে ফেলে দেবেন- তা আমরা কিছুতেই হতে দেব না। আমি পরিষ্কার বলতে চাই, তাহলে আগুন জ্বলে যাবে। ভারতীয় নয় বলে এই মুসলিমদের যদি আপনি বের করার চেষ্টা করেন, তাহলে তো বলব আসামের বিজেপি সরকার এটাকেও আর একটা মিয়ানমার বানানোর চেষ্টা করছে।’

জামিয়ত উলেমা-ই-হিন্দের নেতা আরশাদ মাদানির বক্তব্যের  পরিণতিতে এখন টগবগ করে ফুটছে গোটা আসাম।

এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়