টেলিভিশনের লাইভ প্রোগ্রামে কথা বলতে বলতেই মারা গেলেন তিনি

প্রকাশ | ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:৫৬ | আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:০৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

টেলিভিশনের লাইভ প্রোগ্রামে কথা বলতে বলতেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন জম্মু-কাশ্মীরের শিল্প, সংস্কৃতি ও ভাষা একাডেমির সাবেক সেক্রেটারি অধ্যাপক ড. রিতা জিতেন্দ্র। খবর গ্রেটার কাশ্মীর।

সোমবার সকালে ভারতের ব্রডকাস্টিং টেলিভিশন নেটওয়ার্ক দূরদর্শনের শ্রীনগর স্টেশন ডিডি কাশির’র লাইভ প্রোগ্রাম ‘গুড মর্নিং জেকে’তে কথা বলার সময় মারা যান তিনি।

প্রোগ্রাম চলার সময় স্টুডিও’র পাশেই থাকা ডিডি’র এক কর্মী কাশ্মীর লাইফকে বলেন, তিনি কথা বলার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হন। দ্রুতই তাকে হাসপাতালে নেয়া হয় এবং সেখানে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়।

প্রোগ্রামটির উপস্থাপকের দায়িত্ব পালন করা সিনিয়র লেখক এবং আর্টিস্ট জাহিদ মুখতার বলেন, এ ঘটনায় আমরা হতবাক হয়ে যাই এবং কী করবো তা বুঝতে পারছিলাম না।

তিনি বলেন, তাকে দ্রুতই হাসপাতালে নেয়া হয়। আমরা দর্শক-শ্রোতাদের উদ্দেশে বলি তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন এবং প্রোগ্রামটি চলবে।

ডিডি’র স্টেশন থেকে রিতাকে শ্রী মহারাজা হরি সিংহ হাসপাতালে নেয়া হয়। এই হাসপাতালের মেডিকেল সুপারিটেন্ডেন্ট ড. সলিম তাক বলেন, এখানে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গেই তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

ডিডি’র সাবেক ডিরেক্টর শবির মুজাহিদ বলেন, স্টুডিওতে অসুস্থ হয়ে পড়ার অনেক ঘটনাই আছে। কিন্তু লাইভ প্রোগ্রামে স্টুডিওতেই মারার যাওয়ার ঘটনা এটিই প্রথম।

উল্লেখ্য, লেখিকা, শিক্ষাবিদ ও সমাজকর্মী হিসেবে পরিচিত রিতার স্বামী জিতেন্দ্র খজুরিয়া ছিলেন জম্মুর বাসিন্দা। তিনি অল্প বয়সেরই মারা যান। স্ত্রীর মতো তিনিও লেখালেখির পাশাপাশি জম্মু-কাশ্মীরের শিল্প, সংস্কৃতি ও ভাষা একাডেমির সেক্রেটারি দায়িত্বে ছিলেন।


আরও পড়ুন  :

কে/এ