আফগানিস্তানে পৃথক হামলায় নিরাপত্তা বাহিনীর ৩৭ জন নিহত

প্রকাশ | ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৪২ | আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৫১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
ফাইল ছবি

আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলে পৃথক হামলায় নিরাপত্তা বাহিনীর কমপক্ষে ৩৭ জন সদস্য নিহত হয়েছেন। প্রাদেশিক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তালেবানরা দেশটির উত্তরাঞ্চলে এই হামলা চালিয়েছে।  খবর আল-জাজিরার।

কুন্দুজ প্রদেশের প্রাদেশিক পরিষদের প্রধান মোহাম্মদ ইউসুফ আইয়ুবী বলেছেন, দাস্তি আরচি জেলার একটি নিরাপত্তা চৌকিতে এক হামলায় নিরাপত্তা বাহিনীর কমপক্ষে ১৩ জন নিহত হয়েছেন। এসময় আরও ১৫ জন আহত হয়।

রোববার গভীর রাতে সন্ত্রাসীরা ওই হামলা চালালে উভয়পক্ষের মধ্যে সোমবার সকাল পর্যন্ত বন্দুকযুদ্ধ চলে।

এদিকে জাওযজান প্রদেশের প্রাদেশিক পুলিশ প্রধান জেনারেল ফকির মোহাম্মদ জাওযজানী বলেছেন, খামইয়াব জেলায় আফগান বাহিনীর সদরদপ্তরে কয়েকদিক থেকে হামলা চালায় তালেবান জঙ্গিরা। পরে আফগান বাহিনী সদরদপ্তর থেকে সরে যেতে বাধ্য হয়।

জাওযজানী বলেন, উভয়পক্ষের ব্যাপক লড়াই হয়েছে এবং বেসামরিক ব্যক্তিদের ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত বা তারা হতাহতের শিকার হোক সেটি চাইনি আমরা। ওই হামলায় কমপক্ষে আটজন পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছেন এবং আরও তিনজন আহত হয়েছেন।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, এসময় সাতজন তালেবান যোদ্ধা নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও আটজন।
------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : বাংলাদেশ ভালো থাকলে আমরা ভালো থাকি: মমতা
------------------------------------------------------------------

তালেবানের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ কুন্দুজ ও জাওযজানী প্রদেশে হামলা দায় স্বীকার করেছে।

অন্যদিকে সামানগান প্রদেশের দারা সুফ জেলায় পুলিশ ও সরকারপন্থী মিলিয়াদের ওপর সশস্ত্র গোষ্ঠীর হামলায় ১৪ জন নিহত হয়েছেন। প্রাদেশিক মুখপাত্র সেদিক আজিজি বলেন, এসময় আরও ছয়জন আহত হয়েছেন।

আজিজি বলেন, সোমবারের ওই হামলার সময় তিনজন তালেবান যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। আর আহত হয়েছেন চারজন।

কেউই ওই হামলার দায় স্বীকার করেনি। ওই হামলার জন্য তালেবানকে দায়ী করেছেন আজিজি।

আরেকটি ভিন্ন ঘটনায় উত্তরাঞ্চলীয় সারি পুল প্রদেশের রাজধানী সারি পুল সিটির কাছে সেনা ও সরকারপন্থী মিলিশিয়াদের নিরাপত্তা চৌকিতে হামলা চালিয়েছে বন্দুকধারীরা। প্রাদেশিক পুলিশ প্রধান জেনারেল আব্দুল কাইয়ুম বাকিজাই বলেছেন, দুইজন সরকারপন্থী যোদ্ধা নিহত হয়েছেন এবং আহত হয়েছেন আরও দুইজন। হতাহতদের মধ্যে কোনও সেনা কর্মকর্তা নেই।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, তালেবানের হামলা প্রতিহত করা হয়েছে তবে শহরের আশপাশের এলাকায় বিক্ষপ্ত বন্দুকযুদ্ধ চলছে।

এই হামলার দায়ও স্বীকার করেনি তালেবান।

আরও পড়ুন  :

এ/পি