রয়টার্সের সাংবাদিকদের অবিলম্বে মুক্তি দিন: জাতিসংঘ

প্রকাশ | ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৩০ | আপডেট: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৩:৪৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন

মিয়ানমারে সাত বছরের কারাদণ্ড পাওয়া রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে অবিলম্বে মুক্তি দিতে দেশটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘের নতুন মানবাধিকার প্রধান মিশেল বাচেলেট এই আহ্বান জানান। খবর রয়টার্সের।

এছাড়া বাক স্বাধীনতার চর্চা করতে গিয়ে আটক অন্যান্য সাংবাদিকদেরও মুক্তির দাবি জানিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান।

এর আগে গত সোমবার রাষ্ট্রের গোপনীয়তার আইন লঙ্ঘনে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় মিয়ানমারের একজন বিচারক রয়টার্সের দুই সাংবাদিককে সাত বছরের কারাদণ্ড দেন। এটিকে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটির গণতান্ত্রিক উত্তরণের একটি ঐতিহাসিক পদক্ষেপের জন্য পরীক্ষা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

বাচেলেট তার বিবৃতিতে বলেন- যে আইনি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে তাদেরকে অভিযুক্ত করা হয়েছে যেখানে আন্তর্জাতিক মানদণ্ড নিশ্চিত করা হয়নি।

সেখানে বলা হয়েছে, এর মাধ্যমে মিয়ানমারে কর্মরত সব সাংবাদিকের এমন একটা বার্তা দেয়া হয়েছে, তারা নির্ভয়ে কাজ করতে পারবেন না। হয় তাদের সেল্ফ-সেন্সর করতে হবে না হয় বিচারের মুখোমুখি হওয়ার ভয় নিয়ে কাজ করতে হবে।

ওই দুই সাংবাদিককে কারাদণ্ডের রায় দেয়ার পর গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা গ্রুপ, জাতিসংঘ, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এবং যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও অস্ট্রেলিয়া তাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছে।

এই রায় পুনর্বিবেচনার জন্য মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে আহ্বান জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। আর জাতিসংঘে মার্কিন দূত নিকি হ্যালি ওই সাংবাদিকের তাৎক্ষণিক ও নিঃশর্ত মুক্তির আহ্বান জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন  :

এ/পি