যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াইয়ে হারিকেন লেইনের আঘাতে বন্যা ও ভূমিধস

প্রকাশ | ২৪ আগস্ট ২০১৮, ১৩:২৫ | আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৮, ১৩:৩৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন

যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই অঙ্গরাজ্যে আঘাত হেনেছে হারিকেন লেইন। হারিকেনটির আগমনের ফলে ঝড়ো হাওয়াসহ দমকা গতিতে বাতাস বইছে। রাজ্যটির বেশ কয়েকটি জায়গা দেখা দিয়েছে আচমকা বন্যা এবং ভূমিধস। খবর বিবিসির।

প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারনে সেখানকার স্কুল কলেজ ও অফিস বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। দুর্গতরা বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় নিয়েছেন।

প্রতিবেদনে জানা যায়, হারিকেন যতোই সমুদ্র উপকলবর্তী এ রাজ্যটির কাছাকাছি আসে বাতাসের গতিবেগ বেড়ে দাঁড়ায় ঘণ্টায় ২০০ কিলোমিটার। সেই সাথে দেখা দেয় প্রবল বৃষ্টিপাতের।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হাওয়াই অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। হোয়াইট হাউস জানায়, ফেডারেল কর্তৃপক্ষ সব রকমের সাহায্য ও সমর্থন নিয়ে প্রস্তুত আছে।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী হলেন স্কট মরিসন
-------------------------------------------------------

প্রাথমিকভাবে হারিকেনের বিপদমাত্রা বেশি থাকলেও পরবর্তীতে এটা নেমে দাঁড়ায় ক্যাটাগরি-থ্রি শ্রেণি। বিপদমাত্রা কমলেও পরিস্থিতি এখনও ভয়ঙ্কর অবস্থায় আছে এবং আচমকা বন্যা এই মুহূর্তে কর্তৃপক্ষের দুশ্চিন্তার কারণ বলে জানালেন জাতীয় আবহাওয়া সেবার মুখপাত্ররা।

সেখানকার জাতীয় আবহাওয়া সেবা থেকে পূর্বেই সতর্কতা সংকেত জারি করা হয়েছিল। হারিকেনটি আঘাত হানার পর বৃহস্পতিবার ৩০ সেন্টিমিটারের মতো বৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।

সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট হওয়া ছবি থেকে দেখা যায়, রাস্তাঘাটগুলো ভূমিধসের কারেণ বন্ধ হয়ে আছে এবং গাড়িগুলো গভীর পানির মধ্য দিয়ে চলার চেষ্টা করছে।

শুধু হাওয়াইয়েই নয়, হারিকেনের সতর্কতা জারি করা হয়েছে সেখানকার মাওয়ি, মোলোকাই এবং লানাই দ্বীপগুলোতেও।

হাওয়াইয়ের গভর্নর ডেভি আইগি স্থানীয় অধিবাসীদেরকে প্রয়োজনীয় পানি, খাবার, ওষুধের সাপ্লাই আলাদা করে জমা করে রাখার জন্য আহ্বান করেছেন। তিনি অধিবাসীদের গাড়ি না চালানোর জন্যও আহ্বান করেন।

যদি হারিকেন পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যায়, সে সময়ের কথা মাথায় রেখে ডজনখানেকের উপর আশ্রয়কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

কেএইচ/জেএইচ