• ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৩ আশ্বিন ১৪২৫

আমাদেরকে হুঁশিয়ারি দেয়ার আপনি কে: যুক্তরাষ্ট্রকে দুতার্তে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২০:০৪ | আপডেট : ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২০:০৯
সামরিক বাহিনীকে আধুনিকায়নের প্রচেষ্টায় বাধা দেয়া এবং রাশিয়া থেকে সাবমেরিন কেনার বিরোধিতা করায় যুক্তরাষ্ট্রকে দাঁতভাঙা জবাব দিলেন ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে। গত শুক্রবার (১৭ আগস্ট) মার্কিন সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন- ‘আমাদেরকে হুঁশিয়ারি দেয়ার আপনি কে? এভাবেই কী আপনি মিত্রদের সঙ্গে ব্যবহার করেন এবং আপনি কী চিরদিনের জন্য আমাদের সঙ্গে থাকতে চান?’ খবর বিজনেস ইনসাইডার।

তিনি আরও বলেন, ফিলিপাইন যদি যুক্তরাষ্ট্র থেকে সাবমেরিন কিনতো তাহলে হেলিকপ্টারের কেনার মতোই তা বিলম্বিত হতো।

এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল বিষয়ক মার্কিন সহকারী প্রতিরক্ষামন্ত্রী রানডাল শ্রীভার রাশিয়া থেকে সাবমেরিন কেনার বিষয়ে ম্যানিলাকে সতর্ক করেছেন।

দুতার্তে অভিযোগ করেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ম্যানিলার কাছে ব্যবহার করা পুরনো অস্ত্র বিক্রি করে।

-----------------------------------------------------
আরও পড়ুন : লাখো মুসল্লির পদচারণায় মুখর মিনা, কাল হজ
-----------------------------------------------------

তিনি আরও বলেন- ‘কেন আপনারা এশিয়ার অন্য দেশগুলোকে থামান না? আপনারা কেন আমাদেরকে ঠেকাচ্ছেন? আপনারা আমাদের পেছনে থাকতে চান অথচ ভিয়েতনামের হাতে রয়েছে সাতটি সাবমেরিন, মালয়েশিয়ার আছে দুটি এবং ইন্দোনেশিয়ার হাতে আছে আটটি। শুধুমাত্র আমাদের হাতে কোনও সাবমেরিন নেই। আপনারা আমাদেরকে সাবমেরিন দেননি।’

রাশিয়া কয়েকদিন আগে ফিলিপাইনকে ডিজেল-ইলেক্ট্রিক কিলো-ক্লাস সাবমেরিন বিক্রির প্রস্তাব দিয়েছে। এজন্য প্রয়োজনীয় ঋণ দেয়ার কথাও জানিয়েছে মস্কো যা কয়েক বছর ধরে শোধ করা যাবে। প্রস্তাবটি বিবেচনা করছে ফিলিপাইন।

এদিকে দুর্নীতি ও অবৈধ মাদক বন্ধে ব্যর্থতায় হতাশ ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে। তাই মেয়াদ শেষের আগেই পদত্যাগ করার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি দুতার্তে একাধিকবার বলেন- ‘দুর্নীতি ও মাদক বন্ধ না হওয়ায় আমি হতাশ। তাই চলে যেতে চাই।’ তবে তার শর্ত হলো পদত্যাগের আগে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নিয়োগ পেতে হবে ফিলিপাইনের সাবেক স্বৈরশাসক ফার্দিন্যান্দ মার্কোসের ছেলে মার্কোস জুনিয়রকে।

আরও পড়ুন :

এপি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়