সাবেক সহযোগী ওমারোসার বিরুদ্ধে ট্রাম্পের আইনি পদক্ষেপ

প্রকাশ | ১৫ আগস্ট ২০১৮, ০৯:৫৬ | আপডেট: ১৫ আগস্ট ২০১৮, ১০:১৪

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যান

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণা টিম হোয়াইট হাউজের সাবেক উপদেষ্টা ও রিয়েলিটি টিভি স্টারের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়া শুরু করেছে। ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যান ২০১৬ সালে করা অপ্রকাশযোগ্য একটি চুক্তিভঙ্গ করেছেন উল্লেখ করে নিউ ইয়র্ক শহরে আমেরিকান আরবিট্রেশন অ্যাসোসিয়েশনে সালিশ দায়ের করেছে ডোনাল্ড জে ট্রাম্প ফর প্রেসিডেন্ট, ইনক। খবর বিবিসির।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সমালোচনা করে লেখা নিউম্যানের একটি নতুন বইয়ের প্রচারণা শুরু করার পর উভয়ের মধ্যে দ্বন্দ্ব বৃদ্ধি পায়।

হোয়াইট হাউজে থাকাকালীন সময়ে নিজের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করতে গিয়ে নিউম্যান বলেন, ট্রাম্প একজন বর্ণবাদী। তিনি আফ্রিকান-আমেরিকানদের অত্যন্ত অবমাননাকর ‘নিগার’ শব্দ ব্যবহার করে গালমন্দ করেছেন। হোয়াইট হাউজের সাবেক এই কর্মকর্তা দাবি করেন, তার কাছে এটির টেপ রেকর্ডও আছে।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ইতালিতে ব্রিজ ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৬, অভিযান চলছে
-------------------------------------------------------

তবে মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বেশ রাগান্বিতভাবেই নিউম্যানের দাবি প্রত্যাখ্যান করে এ ধরনের শব্দ ব্যবহারের অভিযোগ নাকচ করে দেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এই টুইটে লিখেন, আমার শব্দকোষে ওই শব্দ নেই এবং এটা কখনও ছিলও না।

ট্রাম্পের রিয়েলিটি টিভি শো ‘দ্য অ্যাপ্রিনটিস’-এর সাবেক তারকা নিউম্যানের অভিযোগ ওই অনুষ্ঠানে কাজ করার সময় ট্রাম্পের ‘নিগার’ শব্দ ব্যবহারের রেকর্ড রয়েছে তার কাছে। তবে তিনি নিজে কখনও ট্রাম্পকে এই শব্দ ব্যবহার করতে শোনার দাবি করেননি।

ট্রাম্পের এক সময়কার প্রখ্যাত কৃষ্ণাঙ্গ সমর্থক নিউম্যানকে ‘কুকুর’ বলার পর উভয়ের মধ্যকার কথার লড়াই এক নতুন মাত্রা লাভ করে। শুধু তাই নয়, ট্রাম্প তার টুইটারে লিখেন, সে এগুলো বানিয়ে বলছে। এমনকি নিউম্যানকে নিচু জাত, নির্বোধ, উন্মাদ ইত্যাদি বিশেষণে ভূষিত করেছেন ট্রাম্প।

তবে নিউম্যানের বিরুদ্ধে সবশেষ পদক্ষেপ হিসেবে এই আইনি প্রক্রিয়া শুরু করা হলো।

আরও পড়ুন :