অর্থ পাচার আইনে অভিযুক্ত হচ্ছেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ | ০৮ আগস্ট ২০১৮, ০৯:০৩ | আপডেট: ০৮ আগস্ট ২০১৮, ০৯:০৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
ফাইল ছবি

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে আজ বুধবার অর্থ পাচার আইনের অধীনে অভিযোগ গঠন করা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগ তহবিল ১ মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বারহাদ (ওয়ানএমডিবি) দুর্নীতির মামলায় ইতোমধ্যে নাজিবের বিচার চলছে। খবর আল-জাজিরার।

৬৫ বছর বয়সী সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার দুর্নীতিবিরোধী কমিশন (এমএসিসি)-র অফিসে তলব করা হয়। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানাচ্ছে, সেখানে প্রায় ৪৫ মিনিট ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় নাজিব রাজাককে।

নাজিব রাজাক তাদের অফিস ত্যাগ করার কিছুক্ষণ পরই এক বিবৃতি প্রকাশ করে এমএসিসি। সেখানে তারা জানায়, সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অর্থ পাচারবিরোধী আইনের অধীনে অভিযোগ গঠন করা হবে।

এমএসিসি-র বিবৃতিতে বলা হয়, এসআরসি ইন্টারন্যাশনাল মামলার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার ঘটনায় এই অভিযোগ গঠন করা হবে। অভিযোগ রয়েছে ওয়ানএমডিবি’র সাবেক এই ভুতর্কি পাওয়া প্রতিষ্ঠান এসআরসি ইন্টারন্যাশনালের তহবিল নাজিবের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করা হয়েছে।

গেল মাসে নাজিবের বিরুদ্ধে বিশ্বাসভঙ্গের তিন অভিযোগ ও ওয়ানএমডিবি তহবিলের অর্থ নিজের ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে ট্রান্সফারে ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়। পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হলে ১০ লাখ রিংগিতের বিনিময়ে জামিন পান। এদিকে নাজিব তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। ওয়ানএমডিবি প্রকল্প নিয়ে সিঙ্গাপুর, সুইজারল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্তত ছয়টি দেশে তদন্ত চলছে।

উল্লেখ্য, গেল মে মাসে এক অবিস্মরণীয় জয়ের মাধ্যমে ছয় দশকের বেশি সময় ধরে মালয়েশিয়ায় ক্ষমতা থাকা বারিসান ন্যাশনালের নেতা নাজিবকে পরাজিত করেন মাহাথির মোহাম্মদ। এরপর থেকেই মাহাথির তার এক সময়ের শিষ্য নাজিবের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্ত শুরু করেন।

আরও পড়ুন : 

এ/পি