• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

বোরকা নিয়ে কটূক্তি করায় জনসনকে ক্ষমা চাইতে হবে: দলীয় প্রধান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৭ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৫১ | আপডেট : ০৭ আগস্ট ২০১৮, ২০:০৮

মুসলিম নারীদের বোরকা নিয়ে কটূক্তি করাই সাবেক ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন দেশটির কনজারভেটিভ পার্টি’র প্রধান ব্র্যান্ডন লুইস।

গত সোমবার যুক্তরাজ্যের ডেইলি টেলিগ্রাফ পত্রিকায় প্রকাশিত এক নিবন্ধে ‘মুসলিম নারীরা বোরকা পরলে তাদের চিঠির বাক্সের মতো এবং হাস্যকর দেখায়’ উল্লেখ করায় তার বিরুদ্ধে ইসলাম বিদ্বেষের অভিযোগ আনা হয়েছে।

তার এই মন্তব্যের সমালোচনা করেছেন দেশটির লেবার পার্টি এবং মুসলিম গোষ্ঠীগুলো।  তাদের মতে, কনজারভেটিভ পার্টি এমন কুসংস্কারের বিরুদ্ধে কিছুই করেনি।

জনসনের মন্তব্য প্রসঙ্গে বর্তমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যালিস্টার বার্ট বলেন, আমি মনে করি তার মন্তব্যে অপরাধের একটা মাত্রা আছে। তবে সরকার পোশাকের বিষয়ে কোনও বিধিনিষেধ আরোপ করবে না।

বার্টের এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত পোষণ করে কনজারভেটিভ পার্টির চেয়ারম্যান লুইস তার টুইটারে লিখেছেন, আমি বরিস জনসনকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

জনসনের মন্তব্যের সমালোচনা করে লেবার পার্টির নেতা নাজ শাহ বলেন, তার বর্ণবাদী অবমাননাকর মন্তব্য হেসে উড়িয়ে দেয়া যায় না। তারা আসলে এমনই।

দেশটির ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির ইসলামভীতি নিয়ে তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে ব্রিটেনের মুসলিম সোসাইটি।

এদিকে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা টেল এমএএমএ এক বিবৃতিতে জানায়, মুসলিম নারীদের মানবাধিকার কেড়ে নিতেই বরিস জনসন এমন মন্তব্য করেছেন। মুসলিম নারীদের নিয়ে যখন এমন ঘৃণ্য মন্তব্য করা হয়, তখন তাদের মানসিক অবস্থা কি রকম হয় সেই বিষয়ে তার কোনও ধারণা নেই।

উল্লেখ্য, ব্রেক্সিট নিয়ে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে মতবিরোধের জেরে গত জুলাই মাসে পদত্যাগ করেন বরিস জনসন।

কে/ এমকে 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়