• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় এলে অনুপ্রবেশকারীদের ফেরত পাঠাবো: বিজেপি সভাপতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০৬ আগস্ট ২০১৮, ২০:০৫ | আপডেট : ০৬ আগস্ট ২০১৮, ২০:১৬
ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে অনুপ্রবেশকারীদের ফেরত পাঠানো হবে। কারণ অনুপ্রবেশকারীরা দেশের নিরাপত্তার জন্য বিপজ্জনক।  রোববার পশ্চিমবঙ্গের হাওড়া জেলার শিবপুরে দলীয় এক সভায় এমনটা বলেন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। খবর পার্সটুডে।

পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি আরও বলেন- পশ্চিমবঙ্গের সীমান্তবর্তী জেলাগুলো অনুপ্রবেশকারীদের দখলে চলে গেছে। অধিকহারে জনসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় উন্নয়ন ও আর্থিক বিকাশ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তার সুযোগ নিয়ে ঘাঁটি গাড়ছে জঙ্গিরাও, যা দেশের নিরাপত্তার পক্ষে বিপজ্জনক।

দিলীপ ঘোষ আরও বলেন- অনুপ্রবেশকারী নিয়ে বিজেপি এখন যা বলছে, বিরোধী নেত্রী থাকার সময় মমতাও এই একই দাবি তুলেছিলেন। কিন্তু এখন তিনি রাজ্যের ক্ষমতায় থেকে ভোটব্যাংক অক্ষুণ্ন রেখে ক্ষমতায় থাকতে অনুপ্রবেশকারীদের হয়ে মাঠে নেমেছেন।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ইমরানকে প্রধানমন্ত্রী পদে মনোনয়ন দিলো পিটিআই
--------------------------------------------------------

এদিকে, উত্তর প্রদেশের গাজিয়াবাদে এক লাখের বেশি বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারী আছেন বলে অভিযোগ করেছেন বিজেপি বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জর। তার দাবি, উত্তর প্রদেশের এসব অভিবাসীরা অবৈধ কাজকর্মে লিপ্ত রয়েছে।

অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) খসড়া তালিকায় ৪০ লাখ মানুষের নাম বাদ যাওয়ায় দেশজুড়ে যখন তীব্র আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে; তখন বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জরের ওই দাবি নতুন বিতর্ক সৃষ্টি করেছে।

বিধায়ক নন্দকিশোর গুর্জর এ ব্যাপারে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথকে চিঠি লিখে তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন।

নন্দকিশোর গুর্জর বলেন- অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে অস্ত্রের চোরাচালান, মাদক কারবার, ডাকাতি, লুটপাট, গোহত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধে যুক্ত থাকতে দেখা গেছে। এসবের ফলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। গাজিয়াবাদ জাতীয় রাজধানী লাগোয়া এলাকা হওয়ায় দেশের নিরাপত্তার জন্য তা বড় হুমকি হতে পারে।

আরও পড়ুন : 

এপি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়